হিসেব বলছে, শেয়ারের দীর্ঘ মেয়াদি মূলধনী লাভের উপর ২০১৭-’১৮ অর্থবর্ষে ৩.৬৭ লক্ষ কোটি টাকা কর ছাড় দিতে হয়েছিল সরকারকে। কিন্তু প্রায় ১৪ বছর পরে ফের ওই কর চালু হওয়ায় আগামী দিনে এ রকম বিপুল রাজস্ব খোয়ানোর পরিস্থিতি তৈরি হবে না বলে জানালেন অর্থ মন্ত্রকের সচিব হাসমুখ আঢিয়া। তাঁর দাবি, এই করের হাত ধরে ২০১৯-’২০ সালে রাজকোষে ঢুকবে ৪০ হাজার কোটি।

শেয়ারে দীর্ঘ মেয়াদি মূলধনী লাভ-কর চালুর পক্ষে সওয়াল করে আঢিয়া বলেন, ‘‘চাকরিজীবীরা উদয়াস্ত পরিশ্রম করে রোজগার করার পরেও ৩০% পর্যন্ত আয়কর গুনছেন। ফলে শেয়ারের মতো লগ্নিতে, যেখানে বিপুল রিটার্ন মেলে, সেখানে কর বসানোর এই সিদ্ধান্ত সঠিক।

আঢিয়ার দাবি, ‘‘২০১৮-’১৯ অর্থবর্ষে আমরা ওই খাতে পাব ২০ হাজার কোটি টাকা। কারণ গত ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত হিসেবে ওই লাভ-কর নেওয়া হচ্ছে না। কিন্তু পরের অর্থবর্ষে আসবে প্রায় ৪০ হাজার কোটি।’’