মার্কিন অ্যাপ ট্যাক্সি পরিষেবা উব্‌র-এর ১৫% অংশীদারি ঝুলিতে পুরছে জাপানের সফটব্যাঙ্ক গ্রুপ ক্যাপিটাল। সফটব্যাঙ্ক গোষ্ঠীর লগ্নিকারী শাখা এটি। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে, প্রাথমিক লগ্নির অঙ্ক ১০০ কোটি ডলার (প্রায় ৬,৪৯৩ কোটি টাকা)। নতুন বছরের শুরুতেই যা ঢালা হবে বলে খবর।

ভারতের অ্যাপ ট্যাক্সি সংস্থা ওলার-ও অন্যতম বৃহৎ অংশীদার সফটব্যাঙ্ক। ফলে উব্‌রে লগ্নি সম্পূর্ণ হলে এ দেশের বৃহত্তম দুই ট্যাক্সি পরিষেবা সংস্থার সঙ্গেই জুড়ে যাবে এই জাপানি বিনিয়োগকারীর স্বার্থ। যারা ভারতের বাজার দখল নিয়ে এই মুহূর্তে পরস্পরকে এক ইঞ্চি জমিও না-ছাড়ার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চালাচ্ছে। ছক কষছে যাত্রীদের গাড়ি চড়ায় ছাড় দিয়ে ও ড্রাইভারদের আরও বেশি সময় চালানোয় বাড়তি লাভের সুযোগ খুলে ব্যবসা বাড়়ানোর।

লগ্নি নিয়ে বিশদে মুখ খোলেনি সফটব্যাঙ্ক। সফটব্যাঙ্ক ইনভেস্টমেন্ট অ্যাডভাইজর্সের সিইও ও গোষ্ঠীর ডিরেক্টর রাজীব মিশ্র শুধু বলেন, ‘‘জানুয়ারির মধ্যেই সার্বিক লগ্নি প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করতে চাই। উব্‌র নেতৃত্ব ও কর্মীদের উপর আস্থা রয়েছে।’’

খতিয়ান

• উব্‌র-এ ১৫% অংশীদারি কিনবে সফটব্যাঙ্ক।

• প্রাথমিক লগ্নি ১০০ কোটি ডলার (৬,৪৯৩ কোটি টাকা)।

• হস্তান্তর ২০১৮ সালের শুরুর দিকেই।

• পর্ষদে ডিরেক্টর ১১ থেকে বাড়িয়ে ১৭ করবে উব্‌র। দু’টি আসন সফটব্যাঙ্কের জন্য।

• লেনদেন সম্পূর্ণ হলে, ওলা ও উব্‌র, ভারতের বৃহত্তম দুই ট্যাক্সি পরিষেবা সংস্থারই বিনিয়োগকারী হবে সফটব্যাঙ্ক।

যদিও এই নেতৃত্ব প্রসঙ্গেই এ বছর বিশ্ব জুড়ে ঘোরতর বিতর্কে জড়িয়েছে মার্কিন সংস্থাটি। পর্ষদের বিরুদ্ধে উঠেছে ভুল পথে পরিচালনার অভিযোগ। যার জেরে অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ট্রাভিস কালানিক ছাঁটাই হয়েছেন। কর্মক্ষেত্রে হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন সংস্থার এক মহিলা কর্মী। উব্‌র চালকের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ ওঠায় দিল্লিতে সাময়িক নিষিদ্ধও হয় সংস্থা।

তবে সব বিতর্ক পেছনে ফেলে এখন ব্যবসা বাড়াতে মরিয়া উব্‌র। যে কারণে নতুন মূলধন টানার সিদ্ধান্ত। সংস্থার মুখপাত্রের দাবি, সফটব্যাঙ্কের লগ্নির হাত ধরে প্রযুক্তি ব্যবস্থার উন্নতি, ব্যবসা বৃদ্ধি ও পরিচালনার ভিত আরও পোক্ত করা যাবে।