সরকারি হাসপাতালের ‘রেফার’ করার রোগ যেন কিছুতেই সারছে না।

ফের আশঙ্কাজনক রোগীকে সরকারি হাসপাতাল ভর্তি না নিয়ে রেফার করার অভিযোগ উঠল। এমনকী, যে হাসপাতালে রেফার করা হয়, সেই এসএসকেএম-এর বিরুদ্ধে রোগীর পরিজনদের অভিযোগ, বিনা চিকিৎসায় রোগীকে হাসপাতালের মেঝেতে ফেলে রাখা হয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, দিন দুয়েক আগে পশ্চিম বর্ধমানের অন্ডালে পথ দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হন বছর পঞ্চাশের অমল মিস্ত্রি। মাথায় গুরুতর চোট নিয়ে তাঁকে প্রথমে পশ্চিম বর্ধমানের একটি সরকারি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখান থেকে জানানো হয়, রোগীর মস্তিষ্কে গুরুতর আঘাত রয়েছে, অস্ত্রোপচার করাতে হবে। তাই তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে রেফার করা হয়।

এর পরে তাঁকে নিয়ে আসা হয় এসএসকেএমে। রবিবার, অমলবাবুর পরিজনেরা জানান, হাসপাতালের জরুরি বিভাগেও তাঁকে ভর্তি নেওয়া হয়নি। এমনকী কোথায় পরিষেবা পাওয়া যাবে, সে ব্যাপারে রোগীর পরিজনদের কোনও রকম সহযোগিতা করা হচ্ছে না। অভিযোগ, মস্তিষ্কে গুরুতর আঘাত নিয়ে রোগী চব্বিশ ঘণ্টা পরেও হাসপাতালের মেঝেতেই পড়ে রয়েছেন। পরিজনদের দাবি, শয্যা না থাকায় ভর্তি করানো যাবে না বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বিনা চিকিৎসায় হাসপাতালের মেঝেতে রোগীর পড়ে থাকা নিয়ে এ দিন কোনও মন্তব্য করতে চাননি এসএসকেএম কর্তৃপক্ষ। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক শীর্ষকর্তা বলেন, ‘‘পরিজনদের চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে কোনও অভিযোগ থাকলে, সেটা নির্দিষ্ট পদ্ধতি মেনে লিখিত ভাবে কর্তৃপক্ষের কাছে দিতে পারেন। এমন কোনও অভিযোগ জমা পড়েছে বলে তো জানা নেই।’’