শহরের দু’টি স্কুলে পরপর নার্সারি ক্লাসের বাচ্চাকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ ওঠার মাঝখানে লা মার্টিনিয়ার ফর গার্লস স্কুলের নার্সারির পড়ুয়াদের জন্য স্কুলগাড়ি নিষিদ্ধ হল। স্কুলের প্রিন্সিপাল রূপকথা সরকারের স্বাক্ষর করা এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ১৬ জানুয়ারি থেকে বাবা-মা অথবা পরিবারের কেউ পড়ুয়াকে স্কুলে পৌঁছে দেবেন এবং বাড়ি নিয়ে যাবেন। এর জন্য তাঁদের যথাযথ পরিচয়পত্র থাকতে হবে।

মঙ্গলবার প্রিন্সিপাল বলেন, ‘‘আপার এবং লোয়ার নার্সারিতে যে ছাত্রীরা পড়ে, তাদের বয়স আড়াই থেকে চার বছরের মধ্যে। এই বাচ্চারা ভাল করে নিজেরা একা বসে আসতে পারে না। অনেক সময় পড়েও যায়। তাই ঠিক হয়েছে, এখন থেকে ছাত্রীর সঙ্গে কাউকে আসতে হবে।’’ তবে তাঁর দাবি, সাম্প্রতিক ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। বিষয়টি নিয়ে আগে থেকেই চিন্তাভাবনা চলছিল। আপার এবং লোয়ার নার্সারি মিলিয়ে এই স্কুলে ছাত্রী-সংখ্যা প্রায় ১৬০। স্কুলের এমন সিদ্ধান্তে অভিভাবকদের যাতে অসুবিধা না হয়, তাই প্রায় দেড় মাস আগে বিষয়টি জানানো হল। প্রিন্সিপাল আরও জানিয়েছেন, লা মার্টিনিয়ার ফর বয়েজ স্কুলের ক্ষেত্রেও একই চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে।