বছরের শেষ দিনের সকালে সাফাইকর্মীদের কাজ দেখতে এলাকায় ঘুরছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলর। বেশ কিছু ক্ষণ পরে ফুটপাথের এক কোনে প্লাস্টিকে মোড়া একটি পুঁটুলি পড়ে থাকতে দেখেন তিনি। সামনে যেতেই দেখা গেল, তাতে রয়েছে একটি সদ্যোজাত শিশু!

রবিবার লিলুয়া বড় গেট এলাকার ঘটনা। পুলিশ জানায়, এ দিন সাড়ে ৭টা নাগাদ জি টি রোডের ফুটপাথে শিশুটিকে পড়ে থাকতে দেখেন ৬২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কৈলাস মিশ্র। তিনি জানান, প্লাস্টিকের ভিতরে কাপড়ে মোড়া ছিল পুত্রসন্তানটি। হাতে তুলতেই সে হাত-পা নাড়তে থাকে। মাঝেমধ্যে কেঁদেও ওঠে। খবর পেয়ে বেলুড় থানার পুলিশ তাকে জায়সবাল হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসকেরা জানান, শিশুটির বয়স দু’-তিন দিন।

খবর পেয়ে হাজির হন বালির বিধায়ক তথা লিলুয়া হোমের পর্যবেক্ষক বৈশালী ডালমিয়াও। তিনি জানান, চিকিৎসার পরে শিশুটিকে লিলুয়া হোমে রাখার ব্যবস্থা হবে। এমনকী, শিশুটির আজীবন পড়াশোনা থেকে যাবতীয় খরচ তিনি বহন করবেন বলেও জানান বিধায়ক। তবে রাস্তায় পড়ে থাকায় শিশুটির ঠান্ডা লেগেছে বলে জানান চিকিৎসকেরা। পরে তাকে হাওড়া জেলা হাসপাতালের চাইল্ড কেয়ার ইউনিটে পাঠানো হয়েছে। কে, কেন শিশুটিকে রাস্তায় ফেলে গেল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। শত্রুতার জেরে কেউ অন্য কারও শিশুকে ফেলে গিয়েছে কি না, তাও দেখছে পুলিশ।