‘আমি আবার পৃথিবীতে পা রাখতে চাই’ প্যারাগ্লাইডিং করতে গিয়ে বলেছিলেন সাহসী সোনিকা। কখনও মডেল, কখনও অ্যাঙ্কার, কখনও কারও মেয়ে, কখনও বা কারও বান্ধবী ছিলেন তিনি। হ্যাঁ, ছিলেন। গত ২৯ এপ্রিল লেক মলের কাছে গাড়ি দুর্ঘটনায় সোনিকার চলে যাওয়াটা এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না তাঁর প্রিয়জনেরা। বিশ্বাস করতে পারছেন না সোনিকার প্রিয় মানুষ সাহেব ভট্টাচার্য।

আরও পড়ুন, বিক্রমকে নিয়ে গিয়ে ঘটনার পুনর্নির্মাণ করতে চায় পুলিশ

দুর্ঘটনার তদন্ত চলছে। সে দিনের গাড়ি চালক অভিনেতা বিক্রম চট্টোপাধ্যায়কে বারংবার জেরা করছে পুলিশ। এর মধ্যেই আদরের ‘সোনু’র জন্য মনকেমনের বিষাদ যেন কিছুতেই কাটিয়ে উঠতে পারছেন না সাহেব। সোনিকার বিভিন্ন টুকরো মুহূর্তে কোলাজ শুক্রবার তিনি শেয়ার করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানে কখনও ফাঁকা রাস্তায় গাড়ি চালাচ্ছেন গতি প্রিয় সোনিকা। কখনও বা পিত্জায় আরামের কামড়ে ফুটে উঠছে তাঁর খুশি। মাত্র ২৭ বছর বয়সেই চলে গেলেন তিনি। ওই ভিডিওর শেষ দৃশ্যে প্যারাগ্লাইডিং করার সময় সোনিকা বলেছিলেন, ‘আমি আবার পৃথিবীর মাটিতে পা রাখতে চাই।’ তাঁর সেই ইচ্ছের কথা এত দ্রুত মনকেমনের কারণ হয়ে উঠবে, তা ভাবেননি কেউ।

ফেসবুকে সাহেব লিখেছেন, ‘ওই হাসি… ওই শেষ কথা আমার হৃদয়কে টুকরো টুকরো করে দিচ্ছে। ওর মুচকি হাসি দেখার জন্য, ওর অট্টহাসি শোনার জন্য আমি সব কিছু করতে পারি।’