বল বাউন্ডারি পেরোলেই কিংবা কেউ আউট হলেই নেচে উঠছিলেন চিয়ার লিডারেরা। মাঠ উপচে পড়া দর্শকদের সামনে চলছিল ধারাবিবরণী। সব মিলিয়ে লক্ষাধিক টাকার নগদ পুরস্কার।

হিঙ্গলগঞ্জের বাঁকড়া এলাকায় ক্রিকেট প্রতিযোগিতাটির আয়োজক ‘বাঁকড়া ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন’। সহযোগিতায় ‘বাঁকড়া আমরা সবাই।’ যোগ দিয়েছিল ১৬টি দল। খেলাগুলি হয় বাঁকড়া ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। যোগদানকারী দলের হয়ে খেলতে দেখা যায় ভিন রাজ্যের ক্রিকেটারদের।

১লা জানুয়ারি থেকে শুরু হওয়া প্রতিযোগিতার ফাইনাল হল বৃহস্পতিবার। ২ রানে জয়ী হয় মেদিনীপুরের গড়বেতা ক্রিকেট একাদশ। ১০ ওভারের খেলায় প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ১৪৯ রান করে গড়বেতার দলটি। জবাবে ১৪৭ রানে অল আউট হয়ে যায় কলকাতার সোনালি শিবির। খেলার শেষ বলে জেতার জন্য ৩ রান প্রয়োজন থাকলেও কলকাতার দলটি ১ রানের বেশি করতে পারেনি।

আয়োজকদের পক্ষে জাহাঙ্গির গাজি এবং মৈনুদ্দিন গাজি জানান, সুন্দরবনের মানুষ ক্রিকেট ভালবাসেন। কিন্তু এত দূর থেকে কলকাতায় গিয়ে সকলের পক্ষে ম্যাচ দেখা সম্ভব হয় না। তাই নিজেদের এলাকাতেই এ ধরনের প্রতিযোগিতার আয়োজন।

ফাইনাল দেখতে উপস্থিত ছিলেন হাজার কুড়ি দর্শক। দু’দলেই ছিলেন ভিন রাজ্যের ক্রিকেটারেরা। ফাইনালে সেরা হয়েছেন হালচাল যাদব এবং প্রতিযোগিতার সেরা পিকু যাদব। ৫ জন দর্শককে বিশেষ পুরস্কার দেওয়া হয়। খেলা শেষে ছিল আতসবাজির প্রদর্শনী। নিজস্ব চিত্র।