চিকিৎসার গাফিলতিতে এক সদ্যোজাতর মৃত্যুর অভিযোগে একটি নার্সিংহোমের সামনে বিক্ষোভ দেখালেন আত্মীয়-পড়শিরা। পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামলায়। মঙ্গলবার বিকেলে তারকেশ্বরের পদ্মপুকুরে কলেজ রোডের ঘটনা।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ধনেখালির গোপীনগর-২ পঞ্চায়েতের রাধানগর গ্রামের বাসিন্দা স্বপ্না গায়েন প্রসব যন্ত্রণা নিয়ে রবিবার বিকেলে তারকেশ্বরের ওই নার্সিংহোমে ভর্তি হন। ওই রাতেই তিনি কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। ভূমিষ্ঠ হওয়ার পরেই শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। সোমবার সকা‌লে তাকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে স্থানান্তরিত করানো হয়। সেখানেই মঙ্গলবার সকাল ১১টা নাগাদ শিশুটি মারা যায়।

বেলা সাড়ে ৩টে নাগাদ শিশুটির বাড়ির লোকজনরা তারকেশ্বরের ওই নার্সিংহোমের সামনে জড়ো হন। চিকিৎসার গাফিলতিতেই শিশুটি মারা গিয়েছে, এই অভিযোগ তুলে বিক্ষোভ শুরু করেন তাঁরা। অভিযোগ, বিক্ষোভকারীরা নার্সিংহোমের ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করেন। কর্মীরা তাঁদের বাধা দেন। বেগতিক বুঝে নার্সিংহোমের গেটও বন্ধ করে দেন তাঁরা। খবর দেওয়া হয় তারকেশ্বর থানায়। পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। পুলিশ জানিয়েছে, এ দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত থানায় লিখিত কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করা হবে।

নার্সিংহোম কর্তৃপক্ষ গাফিলতির অভিযোগ মানেননি। তাঁদের তরফে জানানো হয়েছে, শিশুটির শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। সেই কারণে সোমবার সকালেই উন্নততর চিকিৎসার জন্য শিশুটিকে ‘রেফার’ করা হয়।