মাত্র সাত দিনেই ২০০ কোটি টাকার ক্লাবে ঢুকে পড়েছে ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। আর এই ছবি নাকি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সম্মান জানাতেই তৈরি করা হয়েছে।

দ্য কুইন্টের খবর অনুযায়ী, সলমন-ক্যাটরিনার এই ছবির পরিচালক আলি আব্বাস জাফর জানিয়েছেন, কীভাবে এই ছবির অনুপ্রেরণা হয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। ছবির এই বিরাট সাফল্য প্রধানমন্ত্রীকে উত্সর্গ করেছেন তিনি।

আলি জানিয়েছেন, ২০১৪-এ যেভাবে মোদী সরকার ইরাকে আইসিসের কবল থেকে ৪৬ জন ভারতীয় নার্সকে রক্ষা করেছিল, সেই ঘটনা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে এই ছবি তৈরি করেছেন তিনি। বিশেষ করে প্রধানমন্ত্রীর ভূমিকায় উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন তিনি।

বলিউড-টলিউড-টেলিউডের হিট খবর জানতে চান? সাপ্তাহিক বিনোদন সাবস্ক্রাইব করতে ক্লিক করুন

আলি বলেছেন, ‘‘সেই সময় বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা অজিত ডোভালকে সঙ্গে নিয়ে ১০ দিন একটানা কাজ করেছিলেন মোদী। ইরাক থেকে সব ভারতীয় নার্সকে উদ্ধার করিয়ে এনেছিলেন তিনি। ঘটনাটি আমায় অনুপ্রাণিত করে। আমি কাহিনি লিখতে শুরু করি। সেটাই রূপ নেয় টাইগার জিন্দা হ্যায়-তে।’’

‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ ছবির শুটিং চলাকালীন আলি আব্বাস জাফর ও সলমন। ছবি: টুইটারের সৌজন্যে।

পরিচালক আরও বলেন, ‘‘আপনারা নিশ্চয়ই লক্ষ করেছেন, ছবিতে পরেশ রাওয়ালের চরিত্রটি সলমন অর্থাত টাইগারকে প্রশ্ন করছে, অভিযানের ব্যাপারে ‘পিএম সাব’ জানেন কিনা। আসলে সংলাপে ছিল, ‘মোদীজি কো পতা হ্যায়?’, তবে ছবিটি ফিকশন নির্ভর হওয়ায় সেন্সর বোর্ড সেই ডায়লগ বদলে ‘পি এম সাব’ করতে বলে আমাদের।’’

আরও পড়ুন, জন্মদিনে নাচলেন সলমন, দেখুন ভাইরাল ভিডিও

আরও পড়ুন, বড় পর্দায় মোদীজি! মুক্তি পাচ্ছে এ সপ্তাহেই

পরিচালক কবীর খানের ২০১২-র ছবি ‘এক থা টাইগার’-এর সিক্যুয়েল হিসেবে তৈরি ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’। পাঁচ বছর পর জুটি বেঁধে দুর্দান্ত সাড়া ফেলেছেন সলমন-ক্যাটরিনা।