ফের ধর্মীয় দাদাগিরি। ‘পদ্মাবতী’র পরে ‘বদ্রীনাথ কি দুলহনিয়া’। হিন্দুত্বের ধ্বজা তুলে আবারও আপত্তি। আবারও রোষের আগুনে পড়ল বলিউড।

‘বিকৃত’ ইতিহাস তুলে ধরা হবে, এই অভিযোগ পরিচালক সঞ্জয় লীলা বনশালীকে চড় খেতে হয়েছিল। রাজস্থানে বন্ধ হয়ে যায় ‘পদ্মাবতী’র শুটিং।  গোটা ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছিল বলিউড। এ বার শশাঙ্ক খৈতানের ‘বদ্রীনাথ কি দুলহনিয়া’ নামকরণের উপর উপচে পড়ল হিন্দুত্ববাদী এক সংগঠনের রোষ। তাঁদের মতে ‘বদ্রীনাথ’ হিন্দু সম্প্রদায়ের কাছে পবিত্র এক তীর্থস্থান। শিব-লক্ষ্মীর পীঠস্থান। সেই ‘বদ্রীনাথ’ নামের সঙ্গে ‘দুলহনিয়া’ জুড়ে দেওয়াটাই মেনে নিতে পারছে না ওই সংগঠন।

আরও পড়ুন: হাউস পার্টিতে কেমন নাচলেন সানি? দেখুন ভিডিও

তাদের দাবি, ‘বদ্রীনাথ’ থেকে ছেঁটে ‘বদ্রী’ করা হোক চরিত্রটির নাম। সেন্সর বোর্ডের কাছে অভিযোগপত্রও জমা পড়েছে৷ ওই চিঠিতে নাম পরিবর্তনের দাবিও জানানো হয়েছে। সূত্রের খবর, সেন্সর বোর্ড ওই সংগঠনের সেই দাবি ছবির প্রযোজক কর্ণ জোহরকে জানিয়েছে। তবে, কর্ণ এ নিয়ে মুখ খোলেননি।

গত তিন মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয় বার কর্ণের প্রযোজিত ছবি বিপাকে পড়ল। এর আগেও ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবিতে পাকিস্তানি অভিনেতা ফওয়াদ খানকে নিয়ে ঘোর সমস্যায় পড়েছিলেন তিনি।