এক হাত। তাতে ধরা ১৫টা কাঁচি! সবকটি কাঁচিই এক সঙ্গে চালাতে ওস্তাদ তিনি। দিনের পর দিন এই কাজই তিনি করে চলেছেন, আনায়াসে।

তিনি সাদিক আলি। পাকিস্তানের লাহৌরের এক সেলুনের মালিক। সাদিকের সেলুনের বেশ কদর। নিত্যদিনই ভিড় লেগে থাকে সেখানে। আমনজতা থেকে ভিআইপি— খদ্দেরের তালিকায় রয়েছেন সব্বাই।

আরও পড়ুন: শাহরুখ-সলমন-মেসি-নেমার, সকলে এই খুদের সঙ্গে দেখা করতে দুবাই উড়ে যান কেন?

চুল কাটার স্টাইলের ক্ষেত্রে সাদিকের জুরি মেলা ভার। অত্যন্ত দক্ষতায় এক সঙ্গে ১৫টা কাঁচি হাতে ধরে চুল কাটতে পারেন তিনি। সাদিকের এই আজব স্টাইলের জন্য সেলুনে উপচে পড়ে ভিড়। সবাই চান একবার না একবার তাঁর ১৫ কাঁচির অভিজ্ঞতার শরিক হতে। তবে, সাদিকের সেলুনের খরচের ধরনটা একটু আলাদা। সময় অনুযায়ী টাকা নেওয়া হয় এখানে। কুড়ি মিনিট চুল কাটার খরচ একশো টাকা।

দেখুন ভিডিও:

খরচ যাই হোক, সাদিকের খদ্দেরের তালিকা বেশ চমকপ্রদ। দেশের ক্রিকেট দলের তারকারা সাদিকের খুব ভক্ত। উমর আকমল, সোহেল তনভির, ইনজামাম উল হক, এমনকী পাক কোচ মিকি আর্থারের নিয়মিত যাতায়াত রয়েছে এই সেলুনে।

আরও পড়ুন: মেট্রোয় যুবকের কোলেই বসে পড়লেন বয়স্ক মহিলা! দেখুন ভিডিও

কিন্তু, কেন এমন আজব পদ্ধতি বেছে নিলেন ৩৩ বছরের সাদিক। ‘দ্য ডেইলি মেল’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সাদিক জানান, জনৈক চিনা নাপিত জেডং ওয়াং‌য়ের কথা। যিনি ২০০৭ সালে এক হাতে ১০টা কাঁচি নিয়ে চুল কেটে রেকর্ড করেছিলেন। সাদিকের কথায়, ‘‘ইচ্ছা আছে এক সঙ্গে ১৬টা কাঁচি নিয়ে চুল কাটার। সেই চেষ্টাই করছি।’’ পাশাপাশি, নিজের কাজের ক্ষেত্রেও অত্যন্ত সচেতন সাদিক। আর তাই তো দিনে কুড়ি জনের বেশি কারও চুল কাটেন না তিনি।

আর তা হলেই গিনেস বুকে নাম তুলবেন তিনি!