আদালত অবমাননার অভিযোগে ইমরান খানের বিরুদ্ধে জামিন অযোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করল পাকিস্তানের নির্বাচন কমিশন (ইসিপি)। বৃহস্পতিবার এই পরোয়ানা জারি করে ইসিপি জানিয়েছে, বার বার নির্দেশ দেওয়া সত্ত্বেও আদালতে হাজিরা দিতে যাননি তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-এর প্রধান ইমরান। এমনকী, এ বিষয়ে লিখিত ভাবে ক্ষমাও চাননি তিনি।

ইমরান খানকে গ্রেফতার করে আগামী ২৬ অক্টোবর আদালতে পরবর্তী শুনানির সময় হাজির করতে নির্দেশ দিয়েছে ইসিপি। ‘ডন নিউজ’ জানিয়েছে, ইসিপি-র এই নির্দেশকে ইসলামাবাদ হাইকোর্টে দলের তরফে চ্যালেঞ্জ জানানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-এর মুখপাত্র নাইমুল হক।

শুনানিতে অনুপস্থিত থাকার জন্য গত ১৪ সেপ্টেম্বর ইমরান খানের বিরুদ্ধে জামিন যোগ্য ধারায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিল ইসিপি। কিন্তু, সেই পরোয়ানার বিরুদ্ধে ইমরানের দলের আবেদনের ভিত্তি আদালত তা বাতিল করে দেয়।  পিটিআই-এর মুখ্য আইনজীবী বাবর আওয়ান বলেন, “ওই একই মামলায় নতুন করে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে। এই নয়া পরোয়ানাটি ইসলামাবাদ হাইকোর্টের বেঞ্চের পূর্ব নির্দেশের অবমাননা কি না তা খতিয়ে দেখা হবে। এর পর দলের তরফে তা চ্যালেঞ্জ করা হবে।”

আরও পড়ুন

যুদ্ধ অনিবার্য, পুড়তে হবে আমেরিকাকে, প্রবল হুঙ্কার উত্তর কোরিয়ার

কর্নেলের স্ত্রীর সঙ্গে যৌন সম্পর্ক, ব্রিগেডিয়ারকে শাস্তি দিল সেনা

জোর করে ভক্তদের নির্বীজকরণ: সিবিআই জেরার মুখে রাম রহিম

চলতি বছরের অগস্টেই ওই মামলায় ইমরানকে দ্বিতীয় শো-কজ নোটিস পাঠিয়েছিল ইসিপি। ইসিপি জানিয়েছে, এর আগেও তাদের শো-কজের জবাব দেননি ইমরান। ইমরান অবশ্য ইসিপি-র এক্তিয়ার নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন।