শুক্রবারও ভারতকে আক্রমণের পথ থেকে সরলেন না পাক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। রীতিমত হুমকির সুরে জানালেন ভারতের বিপজ্জনক সামরিক শক্তি আর অস্ত্র ভাণ্ডারের বাড়বাড়ন্তের উপযুক্ত জবাব দিতে তৈরি পাকিস্তান।

‘‘ভারত একদিকে সমস্ত রকম আলোচনার প্রস্তাব খারিজ করছে, অন্যদিকে বাড়িয়েই চলেছে নিজেদের অস্ত্র ভাণ্ডার। আফসোস, আরও অনেকেই ভারতকে এসব কাজে মদত যোগাচ্ছে। ভারতের সামরিক বাহিনীর কার্যকলাপ দিন দিন ভয়াবহ হয়ে উঠছে। ওরা পাকিস্তানকে পাল্টা জবাব দিতে এক কথায় বাধ্য করছে।’’ ইউএস ইন্সটিটিউট অফ পিস-এ বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই মন্তব্য করেছেন শরিফ। তাঁর দাবি, আড়াই বছর আগে মসনদে বসার পর থেকে তিনি বহুবার ভারতের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নতি করার চেষ্টা করলেও, বিপরীত দিক থেকে কোনও উদ্দোগই নেওয়া হয়নি।

দু’দেশের উচ্চপর্যায়ে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত আলোচনা ভেস্তে যাওয়ার দায় শরিফ পুরোপুরি ভারতের উপর চাপিয়ে দিয়েছেন। তিনি বলেছেন ‘‘নরেন্দ্র মোদীর আমন্ত্রণে ওনার শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানেও আমি গিয়েছিলাম। কিন্তু তারপরেও নাটকীয় অজুহাত দেখিয়ে ভারত এনএসএ পর্যায়ের বৈঠক বাতিল করেছে।’’

শরিফের অভিযোগ গত জুলাই মাসে রাশিয়ায় ইউএফএ-তে মোদীর সঙ্গে সাক্ষাতের পরেও তারা দুদেশের মধ্যে আলোচনাটাকে ভারত সন্ত্রাসবাদের সংকীর্ণতায় বেঁধে ফেলতে চেয়েছে।

ভারতে গোঁড়া হিন্দুত্ববাদীদের সাম্প্রতিক কার্যকলাপেরও তীব্র সমালোচনা করেছেন পাক প্রধানমন্ত্রী।