বল আপাতত পাক সেনাপ্রধানের কোর্টে।

মৃত্যুদণ্ডের আদেশপ্রাপ্ত প্রাক্তন ভারতীয় নৌসেনা কুলভূষণ যাদবের বিরুদ্ধে যাবতীয় তথ্যপ্রমাণ খতিয়ে দেখছেন পাক সেনাপ্রধান কমর জাভেদ বাজওয়া। পাক সেনার মুখপাত্র আসিফ গফুর এই কথা জানান।

চরবৃত্তি ও নাশকতামূলক কার্যকলাপের অভিযোগে কুলভূষণকে গত এপ্রিলে মৃত্যুদণ্ড দেয় পাক সেনা আদালত। গত ২২ জুন পাক সেনার মিডিয়া শাখা আইএসপিআর এক বিবৃতিতে দাবি করে, সেনার আপিল আদালতে কুলভূষণের ক্ষমার আর্জি খারিজ হয়ে গিয়েছে। প্রাণভিক্ষা চেয়ে তিনি এ বার পাক সেনাপ্রধানের দ্বারস্থ হয়েছেন। আজ সেই প্রসঙ্গেই পাক সেনার মুখপাত্র বলেন, ‘‘(প্রাণভিক্ষার) আবেদন কতটা জোরালো, তা বিচার করেই সিদ্ধান্ত নেবেন সেনাপ্রধান।’’

পাক আইন অনুযায়ী, সেনাপ্রধান কুলভূষণকে ক্ষমা না করলে তিনি পাক প্রেসিডেন্টের কাছে একই আবেদন জানাতে পারেন তিনি। দ্য হেগ-এর আন্তর্জাতিক আদালত ১৩ ডিসেম্বরের মধ্যে কুলভূষণ নিয়ে তথ্যপ্রমাণ জমা দিতে বলেছে পাকিস্তানকে। গত মে মাসে কুলভূষণের ফাঁসি স্থগিত করে দিয়েছিল আন্তর্জাতিক আদালত। দিল্লির কূটনীতিকদের একাংশের মতে, সেই কারণেই কোমর বেঁধে এখন প্রমাণ ‘সাজাচ্ছে’ পাকিস্তান।