পিছিয়ে এলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প!

আদালতের রায়কে আর চ্যালেঞ্জ নয়। আবার ভিনদেশিদের আমেরিকা প্রবেশে যে নিষেধাজ্ঞা জারির পরিকল্পনা তিনি করেছেন, তা থেকে পিছিয়ে আসাও নয়। অন্য পথ নিতে চলেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের এবং শরণার্থীদের আমেরিকা প্রবেশে ফের নিষেধাজ্ঞা জারি করার তোড়জোড় শুরু করেছেন তিনি, তবে আদালতের আপত্তিগুলিকে এড়িয়ে। ট্রাম্প প্রশাসনের জারি করা নিষেধাজ্ঞার যে অংশগুলিকে সংবিধান বিরোধী বলে আখ্যা দিয়েছিল আদালত, শুধু সেই অংশগুলিকে সংশোধন করে আবার নতুন করে নিষেধাজ্ঞা বলবৎ করার প্রস্তুতি শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার এক সাংবাদিক বৈঠকে আদালতের তীব্র সমালোচনার পর ট্রাম্প নিজেই তাঁর এই নতুন পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন। আমেরিকাকে সন্ত্রাসের জন্য উন্মুক্ত করে রাখা যাবে না, তাই এই সিদ্ধান্ত, মন্তব্য ট্রাম্পের। সংশোধিত নিষেধাজ্ঞায় কী কী পরিবর্তন করা হবে তা এখনও খোলসা করেনি মার্কিন প্রশাসন। তবে হোয়াইট হাউস সূত্রের খবর, আগামী সপ্তাহের মধ্যেই এই নতুন সংশোধিত নিষেধাজ্ঞা ঘোষিত হতে চলেছে।

জানুয়ারির ২৭ তারিখে সাতটি মুসলিম দেশের নাগরিকদের এবং শরণার্থীদের আমেরিকা প্রবেশের উপর ট্রাম্প নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। কয়েকদিন পরেই কোর্ট তাতে স্থগিতাদেশ দেয়। শেষমেশ আদালত ট্রাম্পের জারি করা নিষেধাজ্ঞা বাতিলই করে দেয়। ট্রাম্পের নির্দেশকে সংবিধান বিরোধী আখ্যা দেয় কোর্ট। সন্ত্রাস রোখার যুক্তি দিয়ে যে সাতটি দেশের নাগরিকদের এবং শরণার্থীদের আমেরিকা-প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিলেন ট্রাম্প, সেই সব দেশের বিরুদ্ধে সন্ত্রাস ছড়ানোর কোনও সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণ আদৌ রয়েছে কি না— জানতে চায় আদালত। কিন্তু ট্রাম্প প্রশাসন উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণ দিতে পারেনি। ফলে ট্রাম্পের জারি করা নিষেধাজ্ঞাকে আদালত আর বৈধতা দেয়নি। এ বার আদালতের আপত্তির কারণগুলিকে এড়িয়ে গিয়ে নতুন করে নিষেধাজ্ঞা জারির পথে এগোচ্ছেন ট্রাম্প।

আরও পড়ুন: মেঝেতে কাটল রাত, জেল কোনও আবদার মানল না, ব্রেকফাস্টে চাটনি-ভাত

ট্রাম্প-প্রশাসন থেকে নিষেধাজ্ঞায় স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ার যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল, তাও বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। কূটনীতিক মহলের একাংশের মতে, মার্কিন এই প্রেসিডেন্টকে ঘিরে বিতর্ক কিছু কম নয়। তার উপর প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর তাঁর এই নিষেধাজ্ঞায় আমেরিকা জুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। বিক্ষোভ, আন্দোলনে জেরবার হতে হচ্ছে তাঁকে। তার উপর আইনও তাঁর বিরুদ্ধেই গিয়েছে। পরিস্থিতি থিতু করতেই তাই তিনি নতুন পথে হাঁটতে শুরু করলেন।