রমজান মাস। তাই, মধ্য রাতে মসজিদে বিশেষ প্রার্থনাসভার আয়োজন করা হয়েছিল। ছুটির দিন বলে বেশ ভিড় হয়েছিল সেখানে। কিন্তু, নমাজ শেষে মসজিদ থেকে বেরিয়ে রাস্তায় নামতেই বেপরোয়া গাড়িতে পিষে গেলেন কয়েক জন। রবিবার মধ্যরাতে উত্তর লন্ডনের ফিনসবারি পার্কের সেভেন সিস্টার্স রোডের ওই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত এক জনের মৃত্যু হয়েছে। গুরুতর জখম হয়েছেন ৮ জন।

এই ঘটনাকে সরাসরি জঙ্গি হামলা বলেই চিহ্নিত করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে। পরিস্থিতি পর্যালোচনা করতে তিনি সোমবার উচ্চ পর্যায়ের একটি বৈঠকও ডেকেছেন। পাশাপাশি, আক্রান্ত এবং তাঁদের পরিবারের প্রতি সমবেদনাও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

পুলিশ জানিয়েছে, সেভেন সিস্টার্স রোডে একটি মসজিদের সামনে স্থানীয় সময় রাত সওয়া ১২টা নাগাদ ওই ঘটনা ঘটে। নমাজ পড়ে বেরিয়ে আসা বেশ কয়েক জনকে পিষে দেয় প্রবল গতিতে ছুটে আসা একটি ভ্যান। ঘটনাস্থলেই ১ জনের মৃত্যু হয়। গুরুতর জখম অবস্থায় ৮ জনকে লন্ডনের তিনটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাসবাদী হামলার কথা বললেও, এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি সংগঠন এই ঘটনার দায় স্বীকার করেনি। ওই গাড়ির চালককে ধরে ফেলেন স্থানীয়েরা। তাঁকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়। পরে পুলিশ বছর আটচল্লিশের ওই চালককে গ্রেফতার করেছে। প্রত্যক্ষদর্শী এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, দ্রুত গতিতে আসা ভ্যানটি অন্তত দশ জন পথচীরাকে আচমকাই ধাক্কা মারে। গাড়ির তলায় পিষে যান সকলে।

আরও পড়ুন: পদ হারাতে পারেন, দলেই কোণঠাসা মে

দুর্ঘটনার জেরে সেভেন সিস্টার্স রোড, হর্নসি রোড এবং রক স্ট্রিটের যান চলাচল সাময়িক ভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে। ‘দ্য মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেন’–এর তরফে টুইটারে একটি বিবৃতি দেওয়া হয়। সেখানে বলা হয়েছে, ‘রমজান উপলক্ষে রবিবার রাতে বিশেষ প্রার্থনাসভার আয়োজন করা হয়েছিল ফিন্‌সবারি পার্ক সংলগ্ন ওই মসজিদে। সেই প্রার্থনাসভা থেকে নমাজ পড়ে বেরোচ্ছিলেন অনেকে। সেই সময় ঘটনাটি ঘটে।’ সংস্থার প্রধান হারুন খান অবশ্য এটিকে দুর্ঘটনা বলতে নারাজ। তিনি জানিয়েছেন, ইচ্ছাকৃত ভাবেই এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। তবে এটা সন্ত্রাসবাদীদের কাজ কি না, তা নিয়ে কোনও মন্তব্য করেননি তিনি।

লন্ডনে এই প্রথম নয়, এর আগে এ মাসেরই ৩ তারিখে লন্ডন ব্রিজের কাছে পথচারীদের গাড়িতে পিষে দিয়েছিল এক দল আততায়ী। পরে ছুরি দিয়ে হামলাও চালায় সে। পুলিশ তাদের খতম করার আগে ওই হামলায় আট জনের প্রাণ যায়।  গত ২২ মার্চ একই ভাবে ওয়েস্টমিন্সটার ব্রিজের কাছে পথচারীদের উপর গাড়ি তুলে দেয় এক আততায়ী। এক জন পুলিশ কর্মীকে ছুরি দিয়ে আহতও করে সে। এর পরে গত ২২ মে ম্যানচেস্টারে এক আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণে ২২ জনের মৃত্যু হয়।