৬ পৌষ ১৪২১ সোমবার ২২ ডিসেম্বর ২০১৪ | কলকাতা, পশ্চিমবঙ্গ weather forecast সর্বোচ্চ : ২৬.০°C     সর্বনিম্ন : ১৩.৬ °C

গোমড়া হাবাসও হেসে ফেললেন ফেস্টুন দেখে

রতন চক্রবর্তী ও দেবাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়

২২ ডিসেম্বর, ২০১৪

কোথায় যেন মিশে গেল লর্ডসের সেই আবেগটা

রতন চক্রবর্তী

২২ ডিসেম্বর, ২০১৪

ব্যারেটোকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছেন রফিক

রতন চক্রবর্তী

২২ ডিসেম্বর, ২০১৪

ফাইনালের আগে চাপে ছিলাম, ফাঁস করে গেলেন বেটে

তানিয়া রায় ও সোহম দে

২২ ডিসেম্বর, ২০১৪

আমাদের ট্রফি জয় যতটা আনন্দের, জনসনের ফেরাটা ততটাই আতঙ্কের

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

রবিবার রাতে মুম্বইয়ের ডি ওয়াই পাটিল স্টেডিয়ামে থাকতে পেরে খুব তৃপ্ত লাগছে। যে ভাবে এটিএকে নিজেদের কাজটা মন দিয়ে করে শেষ পর্যন্ত চ্যাম্পিয়ন হল, ভেবে গর্ব অনুভব করছি। মাঝে কয়েকটা ম্যাচে আমরা আমাদের সেরা পারফরম্যান্সটা বার করে আনতে পারছিলাম না। প্রচুর কথাবার্তাও তখন কানে আসছিল। টিম স্পোর্টে যদি কখনও এ রকম পরিস্থিতি তৈরি হয়, তা হলে উচিত সবাই একটা ইউনিট হিসেবে থাকা। একের অন্যের সঙ্গে থাকা। আমরা সেটাই করেছি। প্লেয়াররাই সবচেয়ে ভাল বুঝতে পারে তাদের কখন কী করতে হবে।

২২ ডিসেম্বর, ২০১৪

বঙ্গসন্তানের গোলে আট কোটির ট্রফি কলকাতার

রতন চক্রবর্তী

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

আমি হাবাসের সাহস দেখাতে পারতাম না

সুব্রত ভট্টাচার্য

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

মাঠে নেমেছিলাম এটা জীবনের শেষ কয়েক মিনিট ভেবে

রতন চক্রবর্তী

হাবাসের এক পাশে বসে ফাইনালের প্রথম দলে সুযোগ না পাওয়া লুই গার্সিয়া। অন্য পাশে ফাইনালের নায়ক মহম্মদ রফিক। দেখে মনে হচ্ছিল আবছা হয়ে যাওয়া দেবদূত আর নতুন দেবদূত যেন কয়েক ফুটের ব্যবধানে বসা। মাঝে তাঁদের এই নতুন রূপের রূপকার। “আমি জানতাম ফাইনালে আমার সুযোগ আসবেই। যখন বদলি হিসাবে নামলাম তার পরের প্রতিটি মুহর্তকে মনে হচ্ছিল জীবনের শেষ মিনিট। মাঠে নামার সময় ভেবে নিয়েছিলাম এই ক’টা মিনিট আমার জীবনের শেষ ক’টা মিনিট। আমাকে কিছু একটা করতেই হবে আজ।

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

দাদাগিরি এ বার শাহরুখের মহল্লায়

প্রিয়দর্শিনী রক্ষিত

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

জয়ের সৌরভে মাতোয়ারা ফুটবলের শহর

দেবাঞ্জন বন্দ্যোপাধ্যায়

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

ফিল হিউজ স্পিরিট এখন তিক্ততার সিরিজ

গৌতম ভট্টাচার্য

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

ব্রিসবেন নদীতে পড়ে থাকল সাতষট্টি বছরের স্বপ্ন

গৌতম ভট্টাচার্য

২১ ডিসেম্বর, ২০১৪

এগিয়ে কনস্টানটাইন

ভারতীয় ফুটবল দলের কোচ হওয়ার দৌড়ে সবার আগে রয়েছেন স্টিফেন কনস্টানটাইন। এই ব্রিটিশ কোচ ২০০২ থেকে ’০৫ ভারতের কোচিং করিয়েছেন। কনস্টানটাইনের সঙ্গে এই সম্ভাব্যদের তালিকায় রয়েছেন নর্থ ইস্ট এফসি-র কোচ রিকি হার্বার্ট। তাঁর কোচিংয়ে নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপ খেলেছে। তবু কনস্টানটাইন এগিয়ে কেন? ফেডারেশন সূত্রের খবর, তাঁর কোচিংয়ে এলজি কাপ জিতেছে ভারত।

পড়ুন