ওজন কমানোর কথা ভাবলে প্রথমেই ভাত খাওয়া ছেড়ে দেন বেশির ভাগ মানুষ। তাও আবার রাতে ভাত খাওয়া তখন হয়ে দাঁড়ায় অপরাধ। কিন্তু রাতে পেট ভরে খাওয়াই যে অভ্যাস! তাই চেষ্টা করেও বেশি দিন ধরে রাখতে পারেন না নতুন ডায়েট প্ল্যান। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এর কোনও প্রয়োজনই নেই। রাতে পেট ভরে ভাত খেয়েও ধরে রাখা যায় ওজন।

ন্যাচারাল ইন্সটিংক্ট

সভ্যতার প্রাথমিক পর্যায়ে মানুষ সারা দিন শিকার করে, খাবার জোগাড় করত। সেই সব শিকার করে আনা খাবার দিয়েই তারা রাতের আহার সম্পন্ন করত। পূর্বপুরুষদের সেই অভ্যাসের ধারাতেই আমরা সারা দিন কাজের পর রাতে পেট ভরে খেতে অভ্যস্ত। কিন্তু ডায়েটিশিয়ানরা যে বলেন, রাতে সবচেয়ে কম খাওয়া উচিত? ২০১১ সালে প্রকাশিত ওবেসিটি জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণা কিন্তু বলছে, রাতে পেট ভরে খাওয়ার এই সনাতন নিয়ম কিন্তু বৈজ্ঞানিক। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যারা দিনে পরিশ্রমের পর রাতে বেশি কার্বোহাইড্রেট খান তারা ওজন যেমন নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারেন, ভুঁড়িও হয় না।

ক্যালোরি

সারা দিনে যতটা ক্যালোরি গ্রহণ করবেন তার বেশির ভাগটাই রাতে খাওয়াই আমাদের অভ্যাস আমাদের। দিনে তিন বার পেট ভরে খাই বা ৫-৬ বার অল্প করে খাই, বেশির ভাগ দিনই হয়তো ডিনার লাঞ্চ বা ব্রেকফাস্টের থেকে ভারীই হয়ে যায়। যদি আলু, ভাতের মতো কার্বোহাইড্রেট রাতে ও দিনের বেলা ফল-সব্জির মতো ফাইবারযুক্ত খাবার খেলে আমাদের ফ্যাট বার্নিং হরমোন সবচেয়ে কার্যকর থাকে। এই সময় আমাদের শরীর সেই শিকার করার অবস্থায় থাকে। সারা দিন পরিশ্রমের পর যখন গ্লাইকোজেন কমে আসে তখন কার্বোহাইড্রেট খেলে তা শরীরে এনার্জির ঘাটতি মেটাতে এনার্জি হিসেবে সঞ্চিত হয়। ফ্যাট হিসেবে নয়। যেই এনার্জি আপনার পর দিন কাজের জন্য জরুরি। ঠিক যেমন সারা দিন গাড়ি চালানোর পর রাতে আপনাকে ট্যাঙ্ক ভরতেই হবে পর দিন গাড়ি চালু রাখার জন্য।

মানসিকতা

ছোট থেকেই আমাদের বাড়িতে শেখানো হয় রাতে পেট ভরে খেলে তবেই ভাল ঘুম হয়। আর পর দিন ভাল পড়াশোনা, ভাল কাজ করার জন্য রাতে ভাল ঘুম সবচেয়ে জরুরি। ছোটবেলার সেই অভ্যাসের কারণেই আমরা সারা দিন যেমন তেমন খেয়ে থাকলেও রাতে ভাল করে না খেয়ে ঘুমোতে পারি না। ডায়েটের কথা ভেবে কয়েকদিন রাতে কম খাওয়া অভ্যাস করলেও বেশি দিন সেই অভ্যাস চালিয়ে যেতে পারি না।

আরও পড়ুন: ভাত-রুটি কি একসঙ্গে খাওয়া উচিত?

বাস্তব

যত ক্ষণ পর্যন্ত আপনার ক্যালোরির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে থাকছে, তত ক্ষণ আপনি দিনে কত বার খাচ্ছেন বা কতটা করে খাচ্ছেন, রাতে বেশি খাচ্ছেন কিনা তার উপর ওজন কমা-বাড়া বিশেষ নির্ভর করে না। ডায়েট আপনার জীবনযাপনের সঙ্গে মানানসই কিনা সেটাই মূল ব্যাপার। সারা দিন হাল্কা প্রোটিন, সব্জি, ফল, বাদাম খেয়ে রাতে কার্বোহাইড্রেট খেলেও ওজন হেরফের হবে না।