অতিরিক্ত যাত্রী তোলায় নৌকা উল্টে মৃত্যু হল অন্তত ২২ জনের। তল্লাশি শুরু করে এখনও পর্যন্ত ১২ জনকে উদ্ধার করেছেন জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের কর্মীরা। বৃহস্পতিবার সকালে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের ভাগপত জেলার কথা গ্রামের কাছে।

আরও পড়ুন: ১১ মাসের ছেলেকে বিক্রি করে মোবাইল কিনলেন বাবা!

বর্ষার পর ভরা যমুনায় ৬০ জন যাত্রী নিয়ে পারাপার করছিল ওই নৌকাটি। নৌকায় বেশির ভাগই ছিলেন মহিলা। মাঝ নদীতে যেতেই ভার সামলাতে না পেরে উল্টে যায় নৌকাটি। ভাগপতের জেলাশাসক ভাওয়ানি সিংহ সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে জানান, এখনও পর্যন্ত ২২ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিদের খোঁজ চলছে। তবে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন ভাওয়ানি সিংহ। উদ্ধার হওয়া বেশ কিছু যাত্রীকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

দেখুন ভিডিও

আরও পড়ুন: কর্মরত অবস্থায় মৃত বাবা-মায়ের বিবাহিত কন্যাকেও চাকরি, রায় দিল হাইকোর্ট

দুর্ঘটনায় গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ। মৃতদের পরিবার পিছু ২ লক্ষ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথাও ঘোষণা করেছে রাজ্য সরকার। মুখ্যসচিব অনীশ অবস্তি জানান, জেলা প্রশাসনকে সমস্ত রকম ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের পাশে থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফে।

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে, ওই নৌকা করে প্রায় ৪০ জন শ্রমিক হরিয়ানার উদ্দেশে রওনা দিয়েছিলেন। তাঁদের অনেকের সঙ্গেই ছিল পরিবারও। নৌকাটির পারাপারের অনুমতি ছিল কি না তা-ও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।