কর্নেলের স্ত্রীর সঙ্গে সহবাসের অভিযোগ। অভিযুক্ত এক ব্রিগেডিয়ারকে শাস্তি দিল ভারতীয় সেনা। নিজের দোষ কবুল করার পরই, জেনারেল কোর্ট মার্শালে তীব্র তিরস্কার করে তাঁকে শাস্তি দেওয়া হয়। পাশাপাশি, তাঁর চার বছরের সিনিয়রিটি কমিয়ে দেওয়া হয়েছে।

আরও পড়ুন, নতুন চপ্পল খুঁজতে এ বার তদন্তে নামল পুলিশ!

আরও পড়ুন, ফেসবুকে পোস্ট! ৪২ দিনের জেল

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের খবর অনুযায়ী, চলতি বছরের মে মাসে পশ্চিমবঙ্গের বিন্নাগুড়িতে জেনারেল কোর্ট মার্শাল শুরু হয়। সভাপতিত্ব করেন মাউন্টেন ডিভিশনের জেনারেল অফিসার কম্যান্ডিং। ছয় ব্রিগেডিয়ার র‌্যাঙ্কের অফিসারকে মিলিটারি ট্রায়ালের জন্য ডাকা হয়। সিকিম ব্রিগেডের এক অফিসারকেও সেই কোর্ট মার্শালে ডাকা হয়।

ভারতীয় সেনার ইস্টার্ন কম্যান্ড ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে জানিয়েছে, অভিযুক্ত ওই অফিসার নিজের দোষ শিকার করে নিয়েছেন। এক সিনিয়র অফিসারের বক্তব্য, সে কারণেই নাকি অভিযুক্তের সাজা কিছুটা লাঘব করা হয়েছে। সাধারণত এ ধরনের ঘটনায় কঠোর শাস্তি দেওয়া হয়।