নাগাল্যান্ডে জিতলে খ্রিস্টানদের জন্য নিখরচায় জেরুসালেম সফরের ব্যবস্থা করা হবে। ঘোষণা করল বিজেপি। উত্তর-পূর্ব ভারতের বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যম সূত্রে বিজেপি-র এই ঘোষণার কথা জানা গিয়েছে।

মাসখানেক আগেই সুপ্রিম কোর্টে হজে ভর্তুকি তুলে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। সেই রায়কে স্বাগত জানিয়ে বিজেপি-র তরফে বলা হয়েছিল, তোষণের রাজনীতি কাম্য নয়। কিন্তু মুসলিমদের তীর্থযাত্রায় সরকারি ভর্তুকি যখন উঠিয়ে দিল আদালত, তখন খ্রিস্টানদের তীর্থযাত্রায় নতুন করে ভর্তুকি দেওয়ার প্রতিশ্রুতি কী ভাবে দিল বিজেপি? প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন শিবির থেকে।

উত্তর-পূর্ব ভারতের তিনটি রাজ্য এখন নির্বাচনের মুখে— মেঘালয়, ত্রিপুরা এবং নাগাল্যান্ড। এর মধ্যে মেঘালয়ের জনসংখ্যার ৭৫ শতাংশই খ্রিস্টান। নাগাল্যান্ডে খ্রিস্টান জনসংখ্যা আরও বেশি, ৮৮ শতাংশ। নাগাল্যান্ডে তাই গোটা খ্রিস্টান সম্প্রদায়কেই কাছে টানতে চাইছে বিজেপি, বলছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

বিজেপির প্রতিশ্রুতি নিয়ে অবশ্য কিছুটা বিভ্রান্তিও দেখা দিয়েছে। গোটা দেশের খ্রিস্টান জনগোষ্ঠীর জন্যই নিখরচায় জেরুসালেম সফরের বন্দোবস্ত করা হবে? নাকি শুধু নাগাল্যান্ডের খ্রিস্টানদের জন্য বা উত্তর-পূর্ব ভারতের খ্রিস্টানদের জন্য? এ নিয়ে কৌতূহল দেখা গিয়েছে বিভিন্ন মহলে।

আরও পড়ুন: খতম দুই জঙ্গি, সংঘর্ষ শেষ হল শ্রীনগরে

সংবাদ সংস্থা ইউএনআই জানিয়েছে, নাগাল্যান্ডে বিজেপি জিতলে শুধু নাগাল্যান্ডের খ্রিস্টানরাই নিখরচায় জেরুসালেম ঘুরে আসার সুযোগ পাবেন। ‘উই দ্য নাগাজ’ নামে একটি স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমও টুইট করেছে, ‘‘বিজেপি নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, যদি তারা নাগাল্যান্ডে ক্ষমতায় আসতে পারে, তা হলে খ্রিস্টানদের নিখরচায় জেরুসালেম সফর করানো হবে।’’

আরও পড়ুন: পাক-নীতি নিয়ে দ্বন্দ্বে দুই শরিক

নাগাল্যান্ডে বিজেপির এই নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি জাতীয় রাজনীতিতেও ঢেউ তুলে দিয়েছে। সবচেয়ে বেশি সরব হয়েছে এআইএমআইএম নেতা তথা সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়েইসি। তিনি হজে ভর্তুকি তুলে দেওয়ার প্রসঙ্গ টেনে এনে বিজেপিকে আক্রমণ করেছেন তিনি। ওয়েইসি বলেছেন, ‘‘আমি ঠিকই বলেছিলাম। বিজেপি ভর্তুকি তখনই বহাল রাখে, যখন তা বিজেপির নির্বাচনী স্বার্থ চরিতার্থ করার কাজে লাগে।’’