শুক্রবারই স্কুলে এক বন্ধুর সঙ্গে মারপিট হয়েছিল। সামান্য অসুস্থ বোধ করছিল। কিন্তু ভয়ে বাড়িতে কিছু জানায়নি বিশাল। পর দিন অসহ্য পেটে ব্যথা হওয়ায় সে বিষয়টি খোলসা করে বাবা-মার কাছে। কিন্তু তখন বোধহয় অনেক দেরি হয়ে গিয়েছিল। তাই তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও শেষ রক্ষা হয়নি। হাসপাতালেই মারা যায় ১১ বছরের বিশাল। ঘটনাটি ঘটেছে দিল্লিতে। তার বাবা-মার অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, বিশাল পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। সফদরগঞ্জ হাসপাতালে তাঁর চিকিৎসা চলাকালীনই তাঁর মৃত্যু হয়। বিশালের বাবা পুলিশকে জানিয়েছেন, কোনও একটি বিষয় নিয়ে স্কুলে এক বন্ধুর সঙ্গে তার ঝামেলা হয়। বন্ধু তার পেটে আঘাত করে। সে কারণেই তার পেটে ব্যথা হয় বলে পুলিশকে জানান তিনি।

আরও পড়ুন: ভারতের জলসীমায় প্রচুর পরিমাণ সম্পদের হদিশ পেলেন বিজ্ঞানীরা

পুলিশ জানিয়েছে, বিশালের বাইরে কোনওরকম আঘাতের চিহ্ন নেই। তবে কী কারণে পেটে ব্যথা হয়েছে তা ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে পরিষ্কার হওয়া যাবে।