রামের নামে হিন্দুত্বের হাওয়া তোলা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বিজেপি। আর গুজরাতে ভোটের প্রচারে গিয়ে সঙ্ঘের সেই অস্ত্রকে ভোঁতা করে দিতে নিজের শিবভক্তির কথা টেনে আনলেন রাহুল গাঁধী।

আজই গুজরাতে রাহুলের তিন দিনের প্রচার শেষ হল। এ দিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর এলাকা মেহসানাতেও গিয়েছিলেন রাহুল। সেখানে বেশ কয়েকটি জনসভা করেছেন। তার আগে মেহসানার কাছে বহুচারা মন্দিরে গিয়ে রাহুল বলেন, ‘‘আমি শিবের ভক্ত। সত্যি সত্যিই তাঁকে বিশ্বাস করি। বিজেপি যা-ই বলুক না কেন, অমি আমার অন্তরের সত্যিতে বিশ্বাস রাখি।’’ গুজরাতে গিয়ে এ বার মন্দিরে মন্দিরে ঘুরছেন রাহুল। পাটনের বীর মেঘমায়া মন্দিরে পুজো দেন তিনি। এই মন্দিরের সঙ্গে জুড়ে রয়েছে দলিতদের অস্পৃশ্যতা আটকানোর কাহিনি।

আরও পড়ুন: মন্দির দর্শনে রাহুল, আরএসএস যাবে দরগায়

পাটনের পথেই রাস্তার পাশে ম্যাজিক দেখাচ্ছিলেন স্থানীয় এক জাদুকর। সেখানে গিয়ে জাদুও দেখেন রাহুল। তার পরেই মন্তব্য, ‘‘জাদুকর নানা কৌশল দেখিয়ে টাকা রোজগার করেন। আর মোদীজি ২২ বছর ধরে এমন জাদুই দেখিয়ে চলেছেন।’’ এ দিনের প্রচারে বারবার মোদী সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দাগেন রাহুল। পাটনে গিয়ে বলেন, ‘‘পাঁচ-দশজন শিল্পপতি ছাড়া মোদী সরকারের বিরুদ্ধে এখন সবাই প্রতিবাদ জানাচ্ছে।’’ প্রচারের মধ্যে বারবারই নিরাপত্তা ভেঙে মানুষের কাছে পৌঁছন রাহুল।

তাঁর প্রচার ঘিরে রাজ্যের মানুষের প্রতিক্রিয়ার কথা জানতে চেয়েছিলেন সাংবাদিকরা। রাহুল বলেন, ‘‘প্রতিক্রিয়া নয়, এটা ভালবাসা। গুজরাতের মানুষ আমাদের ভালবাসা দিয়ে চলেছেন, আমিও তাঁদের সেটাই ফিরিয়ে দিচ্ছি।’’ থ্যালাসেমিয়া আক্রান্ত একটি মেয়ে এ বার যে ভাবে তাঁকে স্বাগত জানিয়েছে, গুজরাত সফরে সেটাই তাঁর সব থেকে বড় পাওয়া বলে জানিয়ে দেন রাহুল।