সচিন তেন্ডুলকরের কন্যা সারার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে কংগ্রেস নেতা শরদ পওয়ারকে আক্রমণ করে ধেয়ে আসছিল একের পর আপত্তিকর মন্তব্য! ঘটনাটি সচিনের কানে পৌঁছয়। পুলিশ তদন্তে জানতে পারে, অ্যাকাউন্টটি নকল। অভিযোগ, এর পিছনে রয়েছে অন্ধেরির এক সফ্‌টওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার, নিতিন শিশোদে। তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সচিনের পক্ষ থেকে তাঁর আপ্তসহায়ক মুম্বই পুলিশের সাইবার শাখায় অভিযোগ জানিয়েছিলেন। পুলিশকে তিনি জানান, সারা লন্ডনে পড়াশোনা করছে। রাজনীতিতে তার আগ্রহ নেই। অথচ ‘সারাসচিন_আরটি’ নামে একটি অ্যাকাউন্ট থেকে সারার নাম করে একের পর বিতর্কিত মন্তব্য পোস্ট করা হচ্ছে, যার বিন্দুবিসর্গও জানে না সচিন-কন্যা।

পুলিশ তদন্তে নেমে দেখে ওই টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে করা পোস্টের নীচে অনেকেই মন্তব্য করেছেন, নকল অ্যাকাউন্ট। কেউ কেউ লিখেছেন, সারা টুইটারেই নেই। পুলিশের এক শীর্ষ কর্তা বলেন, ‘‘নকল অ্যাকাউন্ট বোঝার পর আমরা আইপি অ্যাড্রেস দেখে খোঁজ শুরু করি। তাতে শিশোদের অন্ধেরির বাড়ির ঠিকানা জানা যায়। তার পর প্রযুক্তিগত সাহায্য নিয়ে জানা যায় ওই নির্দিষ্ট রাউটারটি শিশোদে ব্যবহার করেন।’’

শিশোদের আইনজীবী অজয় দুবের দাবি, তাঁর মক্কেলকে ফাঁসানো হয়েছে। তিনি বলেন, ‘‘শিশোদে সেকেন্ডহ্যান্ড কম্পিউটার ও ল্যাপটপ ব্যবহার করেন। উনি পুলিশকে জানান, কিছু দিন আগে একটি ল্যাপটপ বিক্রি করেছিলেন। যাকে বিক্রি করেছেন, সেই লোকটিও এই কাজ করে থাকতে পারে। পুলিশ কিছু না শুনে ওঁকে গ্রেফতার করেছে।’’ ৩৯ বছর বয়সি শিশোদের সেকেন্ড-হ্যান্ড ল্যাপটপ, দু’টি মোবাইল বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। ফরেন্সিক পরীক্ষায় পাঠানো হয়েছে সেগুলি। জালিয়াতি, প্রতারণা ও মানহানির মামলা করা হয়েছে শিশোদের বিরুদ্ধে। আদালতে তাকে ৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছে।