বিমানবন্দরে নামার মুখে আকাশেই যানজট! দিল্লি, মুম্বই, বেঙ্গালুরু এমনকী কলকাতাতেও একই দৃশ্য।

রানওয়েতে নামার জন্য এক এক সময়ে ১৫-২০ টি বিমানকে আকাশে চক্কর কাটতে হচ্ছে। কখনও ১০ মিনিট, কখনও ৪০ মিনিটও! শুধু জ্বালানি নষ্ট হচ্ছে তাই নয়, দূষণ হচ্ছে এবং সময়ও নষ্ট হচ্ছে।

আকাশের এই যানজট ঠেকাতে এ বার সফটওয়্যার নিয়ে আসছে বিমান মন্ত্রক। সেন্ট্রাল এয়ার ট্রাফিক ফ্লো ম্যানেজমেন্ট (ক্যাটএফএম) নামে সেই সফটওয়্যার প্রথম চালু হতে চলেছে রাজধানী দিল্লিতে। এয়ার ট্রাফিক ম্যানেজমেন্ট-এর এক কর্তা জানিয়েছেন, যে বিমান দিল্লিতে আসবে, সে সফটওয়্যার মারফত আগে ভাগেই জেনে যাবে, কোন সময়ে দিল্লির আকাশে সে পৌঁছলে যানজট এড়াতে পারবে। ওই কর্তার কথায়, সেই সময় হিসেব করে সংশ্লিষ্ট শহর থেকে দিল্লির দিকে উড়ে যাবে বিমানটি।

ওই কর্তা বলেন, ‘‘এখন যেখানে দিল্লির আকাশে পৌঁছে নামার জন্য ১৫ জনের পিছনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে, তখন হয়তো ৩-৪ জনের পরেই বিমানটি নেমে যেতে পারবে। তাতেও অনেকটাই জ্বালানি এবং সময় বাঁচবে। দূষণও কমবে।’’ উদাহরণ দিয়ে কর্তা জানিয়েছেন, কলকাতা থেকে যে বিমানটির বিকেল পাঁচটায় ছেড়ে দিল্লি যায়, দেখা গিয়েছে সে যদি ৫টা ১০ মিনিটে ছাড়ে তা হলে দিল্লি পৌঁছে তাকে বেশিক্ষণ আকাশে অপেক্ষা করতে হবে না। সারা দেশের সমস্ত দিল্লিগামী বিমানের ক্ষেত্রেই এ ভাবে সময় বেঁধে দেবে সেই সফটওয়্যার।

মন্ত্রক সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবসে এই ব্যবস্থাটি একবার পরীক্ষা করা হয়েছে। সে দিন বায়ুসেনার বিমান কুচকাওয়াজের সময়ে মহড়া দেয় বলে রাজধানীতে বিমান ওঠানামা কিছুক্ষণ বন্ধ রাখা হয়। পরে একসঙ্গে অনেকগুলি বিমান হুড়মুড় করে এসে পড়ে। সে দিন ওই সফটওয়্যার ব্যবহার করে প্রাথমিক সফলতা পাওয়া গিয়েছে বলে ওই কর্তা জানিয়েছেন।

আরও পড়ুন: তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পে চাকরির জন্য উপযুক্ত নন দেশের ৯৫% হবু ইঞ্জিনিয়র!

এখানে উঠে আসছে কলকাতার প্রসঙ্গও। কলকাতা থেকে যে বিমানগুলি এখন অন্য শহরে ছেড়ে যাচ্ছে, সেগুলিকে অনেক সময়ে কলকাতার রানওয়ের মুখে গিয়ে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। সেখানেও উঠে আসছে জ্বালানি ও সময় অপচয়ের প্রসঙ্গ। কলকাতার এয়ার ট্রাফিক ম্যানেজমেন্টের জিএম বরুণ কুমার সরকার জানিয়েছেন, এ ক্ষেত্রেও সফটওয়্যার বসিয়ে বিমানগুলিকে এমন একটি সময় ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হবে, যাতে বিমানকে আর রানওয়ের মুখে গিয়ে অপেক্ষা করতে না হয়। কলকাতায় এই ব্যবস্থা চালু হতে কিছু দিন সময় লাগবে।

ঠিক হয়েছে, মাস তিনেকের মধ্যে দিল্লি-র ওই ক্যাটএফএম ব্যবস্থা চালু হবে। কলকাতায় নতুন এই ব্যবস্থা চালু হলে দিল্লির ক্যাটএফএম-এর সঙ্গে তাকে যোগ করা হবে। পরে দিল্লির মতো কলকাতা-মুম্বই-বেঙ্গালুরুতেও সফটওয়্যার বসিয়ে আকাশের যানজট কমিয়ে ফেলা হবে।