মেঝেতে পড়ে দুই মহিলা। রক্তে ভেসে যাচ্ছে তাঁদের শরীর। পাশেই পড়ে রয়েছে এনএসজি কম্যান্ডো জিতেন্দ্র যাদবের দেহ। অভিযোগ, সার্ভিস রিভলভার থেকে স্ত্রী ও শ্যালিকাকে গুলি করে আত্মহত্যা করেছেন তিনি। হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন ওই দুই মহিলা— জিতেন্দ্রর স্ত্রী ও শ্যালিকা। মঙ্গলবার ঘটনাটি গুরুগ্রামের এনএসজি ক্যাম্পের।

পুলিশ জানিয়েছে, বছর দু’য়েক ধরে বিএসএফ-এ কর্মরত ছিলেন জিতেন্দ্র। ক্যাম্পের ৪২ নম্বর ফ্ল্যাটেই পরিবার নিয়ে থাকতেন তিনি। তদন্তকারী অফিসার রাহুল কুমার বলেন, “মঙ্গলবার সকালে ওই ফ্ল্যাট থেকে জিতেন্দ্রর দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকেই আশঙ্কাজনক অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে জিতেন্দ্রর স্ত্রী গুড্ডন এবং শ্যালিকা খুশবুকে।”

পেটে গুলি লাগলেও কোনও রকমে বেঁচে যান জিতেন্দ্রর স্ত্রী ও শ্যালিকা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁদের স্থানীয় হাসপাতালের আইসিইউ-তে ভর্তি করানো হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, তাঁদের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

আরও পড়ুন

যন্ত্রণা যায়নি, বললেন আডবাণী

ভিড়ের মধ্যে বাইরের ওঁরা কারা

পুলিশের অনুমান, পারিবারিক অশান্তির জেরেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছেন জিতেন্দ্র। গুড্ডন ও খুশবুর বয়ান রেকর্ড করতে পারেনি পুলিশ। রাহুল কুমার বলেন, “জিতেন্দ্রর স্ত্রী ও শ্যালিকা কিছুটা সুস্থ হলেই তাঁদের বয়ান রেকর্ড করা হবে। তখনই এই ঘটনার পিছনে আসল কারণ জানা যাবে।”