পাসপোর্টের বড় পরিবর্তন আনতে চলেছে কেন্দ্র। বিদেশমন্ত্রক জানিয়ে দিল— এ বার থেকে আর বাবা, মা, অভিভাবক, স্ত্রীর নাম বা ঠিকানা লেখা থাকবে না পাসপোর্টে। এর ফলে, ঠিকানার প্রমাণপত্র হিসাবে আর গ্রাহ্য হওয়ার উপায় থাকবে না পাসপোর্টের।

পাসপোর্ট থেকে বাবার নাম রাখা নিয়ে অনেক দিন ধরেই প্রশ্ন ছিল। সিঙ্গল পেরেন্টদের দিক থেকে যেমন প্রশ্ন উঠেছে, তেমনই প্রশ্ন উঠেছে দত্তক নেওয়া অভিভাবকদের দিক থেকেও। এ ছাড়া, সংশ্লিষ্ট নাগরিকের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষার বিষয়টিও সামনে আসছিল। পাসপোর্টের শেষ পাতা থেকে এ ধরণের তথ্যগুলি সরিয়ে দেওয়ার বেশ কিছু আবেদন জমা পড়ে সরকারের কাছে।

এই সব আবেদন খতিয়ে দেখার জন্য কেন্দ্রীয় বিদেশমন্ত্রক এবং নারী ও শিশু উন্নয়ন মন্ত্রকের তিন সদস্যকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়। কমিটি সব দিক খতিয়ে দেখে বিদেশমন্ত্রককে সুপারিশ দেয়। সেই সুপারিশের ভিত্তিতেই কেন্দ্র সিদ্ধান্ত নিয়েছে, পাসপোর্টে আর এ ধরণের তথ্য দেওয়া হবে না।

আরও পড়ুন: সেরা বাণিজ্য-বন্ধু শিরোপা রাজ্যের, বড় প্রাপ্তি

বর্তমান নিয়ম অনুযায়ী পাসপোর্টের শেষ পাতায় পাসপোর্ট হোল্ডারের ঠিকানা, বাবা অথবা আইনি অভিভাবকের নাম, মা-র নাম, স্ত্রীর নাম (প্রযোজ্য হলে) থাকে। শুধু তাই নয়, ‘এমিগ্রেশন স্ট্যাটাস’ সম্পর্কিত তথ্যও থাকে সেখানে। কিন্তু পাসপোর্টের ওই শেষ পাতাটাই আর ছাপা হবে না বলে মন্ত্রক থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিদেশমন্ত্রক এক বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছে, “(কমিটির) সুপারিশ খতিয়ে দেখেছে মন্ত্রক... এবং সিদ্ধান্ত নিয়েছে যে পাসপোর্ট আইন ১৯৬৭ এবং পাসপোর্ট আইন ১৯৮০ অনুযায়ী পাসপোর্ট বা অন্যান্য ভ্রমণ নথিতে যে শেষ পাতাটি ছিল, তা আর ছাপা হবে না।” তবে, একই সঙ্গে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে মেয়াদ শেষ না হওয়া পর্যন্ত পুরনো পাসপোর্টই ব্যবহার করতে পারবেন নাগরিকরা।

আরও পড়ুন: হেমা মালিনীর বাড়ির সামনে চিতা বাঘ!

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, যাঁদের ‘এমিগ্রেশন চেক স্টেটাস’ (ইসিআর) পাসপোর্ট আছে, নতুন নিয়ম অনুযায়ী সেই পাসপোর্টের রঙও বদলে ফেলে কমলা রঙের করা হবে। পাসপোর্টের এই রং দিয়েই চিনে নেওয়া যাবে ওই স্টেটাসের পাসপোর্ট হোল্ডারদের। তবে ইসিআর স্টেটাসভুক্ত যাঁরা নন, তাঁদের পাসপোর্টের রং হবে নীল। বর্তমানে তিন রঙের পাসপোর্ট রয়েছে ভারতে। সরকারি আধিকারিকদের জন্য পাসপোর্টের রং সাদা, কূটনীতিকদের জন্য লাল এবং বাকি সব নীল রঙের।