রজার ফেডেরার থেকে বরিস বেকার, বহু টেনিস প্লেয়ারের তারকা হয়ে ওঠার গল্পের সাক্ষী থেকেছে উইম্বলডন। রেকর্ড গড়া-ভাঙার খেলায় টেনিস মহলের চোখ সবসময়ই ছিল সেন্টার কোর্টে। এ বার সেই সেন্টার কোর্টই সাক্ষী থাকল এক অভিনব ঘটনার।

আরও পড়ুন: উইম্বলডন চ্যাম্পিয়ন হয়ে র‌্যাঙ্কিংয়ে উঠলেন রজার

উইম্বলডন ইতিহাসে প্রথমবার মহিলাদের স্কার্ট পরে টেনিস কোর্টে নামলেন এক আইরিশ সমর্থক। উইম্বলডনে মহিলাদের আমন্ত্রণমূলক প্রতিযোগিতায় এই অদ্ভূত দৃশ্যের সাক্ষী থাকল গোটা টেনিস বিশ্ব।

উইম্বলডনের সেন্টার কোর্টে ম্যাচ চলছিল কিম ক্লিস্টার্স এবং তাঁর পার্টনার রেনে স্টাবসের সঙ্গে কনচিতা মার্টিনেজ এবং আন্দ্রে জাইগারের। ম্যাচ চলাকালীনই কোর্টের বাইরে থেকে ক্রিস কুইন নামক এক জনৈক সমর্থক বার বার কিম ক্লিস্টার্সকে বুঝিয়ে দিচ্ছিলেন কোথায় সার্ভিস করতে হবে। কুইনের অঙ্গ ভঙ্গি দেখে মনে হচ্ছিল কিমকে দীর্ঘ দিন কোচিং করাচ্ছেন তিনি এবং তার পরও কোর্টে ব্যর্থ কিম। একটা সময় মাঠের বাইরে থেকে দেওয়া কুইনের উপদেশে বেশ বিরক্ত দেখায় কিমকে। তবুও নিজের কাজে অবিচল ছিলেন ক্রিস কুইন।

দেখুন সেই ভিডিও

অবশেষে গ্যালারির সামনে গিয়ে নিজের টেনিস ব্যাট কিম তুলে দেন ক্রিসের হাতে। অন্য দিকে, ক্রিসের শারীরিক ভাষাও ছিল আত্মবিশ্বাসে ভরপুর। তবে, কোর্টে ক্রিস স্বাগত জানালেও উইম্বলডনের ড্রেসকোড ছিল না ক্রিসের গায়ে। যাতে উইম্বলডনের নিয়ম বহাল থাকে সেই জন্য নিজের কিট ব্যাগে থাকা একটি স্কার্ট এবং একটি টপ ক্রিসকে নিজে হাতে পরিয়ে দেন কিম ক্লিস্টার্স। আর এর পরই স্কার্ট পরা ক্রিস কুইনকে দেখে হাসতে হাসতে মাটিতে লুটিয়ে পরে কিম ক্লিস্টার্স, হাসি থামাতে পারেননি সেই সময় সেন্টার কোর্টে উপস্থিত বাকি দর্শকরাও। তবে, তাঁকে নিয়ে সকলে হাসলেও, উদ্দম হারাননি কুইন। তিন জন প্রফেশনাল প্লেয়ারের সঙ্গে তিনটি শর্টও খেলেন তিনি, তবে একটিও জালের উল্টো পারে পাঠাতে পারেননি তিনি।