পিবিএলে আহমেদাবাদ স্ম্যাশ মাস্টার্সের সেমিফাইনালের স্থান পাকা করলেন এইচ এস প্রণয়। মুম্বই রকেটসের সন ওয়ান হো-র বিরুদ্ধে সিঙ্গলসে ১৫-১২, ১৫-১২ জিতে নিজের দলকে শুরুর দিকেই ৩-০ এগিয়ে দেন ভারতের এই ব্যাডমিন্টন তারকা। শেষ পর্যন্ত মঙ্গলবারের টাইয়ে মুম্বইকে ৫-০ হারিয়েছে আহমেদাবাদ। ফলে পিবিএলের তৃতীয় মরসুমে প্রথম দল হিসেবে সেমিফাইনালে জায়গা নিশ্চিত করে ফেলল আহমেদাবাদ স্ম্যাশ মাস্টর্স।

প্রথম গেমে হারার পরে দ্বিতীয় গেমের শুরু থেকেই এগিয়ে ছিলেন বিশ্ব র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচ নম্বর সন ওয়ান হো। ১২-৯ এগিয়ে থেকেও শেষ রক্ষা করতে পারেননি তিনি। তার পরেই মেয়েদের সিঙ্গলস ম্যাচ জিতে আহমেদাবাদের ব্যবধান বাড়িয়েছেন বিশ্বের এক নম্বর তাই জু ইং। তিনি ১৫-৯, ১৫-১২ হারিয়েছেন বেইওয়ান ঝ্যাং-কে।

মিক্সড ডাবলস ম্যাচেও মুম্বইয়ের লি ইয়ং দায় ও গ্যাব্রিয়েলা স্টোয়েভাকে ১৫-১১, ১৫-৭ হারিয়েছেন আহমেদাবাদের লৌ চিউক হিম ও কমিল্লি রিট্টার জুটি। এর পরে ট্রাম্প ম্যাচে সমীর বর্মাকে ১৫-১৪, ১৫-১১ উড়িয়ে দিলেন তাঁর দাদা সৌরভ বর্মা। ম্যাচের আগেই প্রণয় টুইট করেছিলেন, ‘এক শতাংশ সুযোগ ও ৯৯ শতাংশ বিশ্বাস নিয়েই লিগের শেষ ম্যাচ খেলতে নামছি আমরা। সেমিফাইনালে ওঠার মরণ-বাঁচণ ম্যাচ।’ টাইয়ে সেই কাজটাই করে দেখালেন তিনি।

মু্ম্বইকে হারিয়ে পঁচিশ ম্যাচ খেলে ১৭ পয়েন্টে লিগ তালিকার শীর্ষে  চলে গেল আহমেদাবাদ স্ম্যাশ মাস্টার্স। ২০ ম্যাচ খেলে ১৫ পয়েন্টে লিগের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে বেঙ্গালুরু ব্লাস্টার্স। তালিকার চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে রয়েছে সাইনা নেহওয়ালের আওয়াধ ওয়ারিয়র্স ও পি ভি সিন্ধুর চেন্নাই স্ম্যাশার্স। আহমেদাবাদের বিরুদ্ধে এই ম্যাচে হেরে তালিকার শেষে পঁচিশ ম্যাচে দশ পয়েন্টে রয়েছে মুম্বই রকেটস। পিবিএলের প্রথম বর্ষেই তারা চ্যাম্পিয়ন হতে পারে কি না এটাই দেখার।