চ্যাম্পিয়ন্স লিগে ৩-০ জিতে শুরু করেছে ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেড। তাতেও খুশি নন জোসে মোরিনহো। দলের ফুটবলারদের গা ছাড়া মনোভাবে চটেছেন তিনি। একইসঙ্গে দুশ্চিন্তাও তৈরি হয়েছে অন্যতম প্রধান ফুটবলার পল পোগবা চোট পাওয়ায়। যা খবর, হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পাওয়া পোগবাকে কয়েক সপ্তাহ বাইরে থাকতে হতে পারে।

মোরিনহো নিজেও সে রকমই ধরে রাখছেন। খেলার পরে তিনি তক্ষুনি বলতে পারেননি যে, চোট কতটা গুরুতর। তবে তিনিও ধরে নিচ্ছেন, হ্যামস্ট্রিংয়েই চোট লেগেছে। ‘‘আমি যতদূর জানি, এ ধরনের চোট সারতে কয়েক সপ্তাহ লেগে যায়।’’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগের প্রথম ম্যাচে বাসেলের বিরুদ্ধে মাত্র ১৮ মিনিট মাঠে থাকতে পেরেছিলেন পোগবা। তার পরেই তিনি চোট পেয়ে বাইরে চলে যান। দুনিয়া জুড়ে অসংখ্য ম্যান ইউ ভক্তের মনে আশা জাগিয়ে এ বারে ইপিএলে দারুণ শুরু করেছে মোরনিহোর ম্যান ইউ। সে দিক দিয়ে দেখতে গেলে পোগবার চোট একটা ধাক্কা। মোরিনহোর নকশায় পোগবাকে প্রধান ইঞ্জিন বলে মনে করা হয়। তিনি না থাকলে বিঘ্নিত হতে পারে তাঁর খেলার ভঙ্গিমাও। যদিও জোসে নিজে সেই অকুতোভয়। একেবারেই পাত্তা দিতে রাজি নন এই চোটকে। বলে দিচ্ছেন, ‘‘স্কোয়া়ড থাকলেই চোট-আঘাত ধেয়ে আসবে। স্কোয়াড থাকলেই ফুটবলার নির্বাসিত হবে। এ সবই খেলার অঙ্গ। আমরা চোট নিয়ে কান্নাকাটি করি না।’’

আরও পড়ুন: ক্লাব জার্সিতে সেই জাদুকর

তার পরেই দ্রুত যোগ করছেন, ‘‘যদি পোগবা না থাকে, তাহলে আমাদের ফেলাইনি আছে। আন্দের এরেরা আছে। ক্যারিক আছে।’’ মঙ্গলবার রাতে পোগবা চোট পাওয়ার পরে পরিবর্ত হিসেবে মোরিনহো নামিয়েছিলেন ফেলাইনি-কেই। আর প্রথম গোলটা করে ফেলাইনি তাঁর কোচের আস্থার মর্যাদা রাখতে দেরি করেননি। ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের পরের ম্যাচ ইপিএলে রবিবার এভার্টনের বিরুদ্ধে। অর্থাৎ, ওয়েন রুনি বনাম ম্যান ইউ আকর্ষণীয় লড়াই। মাঝখানে দু’তিন দিন সময় থাকলেও মোরিনহো যেরকম ইঙ্গিত দিয়েছেন, তাতে রবিবারের ম্যাচে পোগবাকে পাওয়ার সম্ভাবনা কম। তবে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে খবর পাওয়া যাবে মেডিক্যাল পরীক্ষার পরে। শুক্রবার পরের ম্যাচের সাংবাদিক সম্মেলনে আসবেন মোরিনহো। তখন পোগবাকে নিয়ে ‘আপডেট’ পাওয়া যেতে পারে।