চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের ২৪ ঘন্টা পরও প্রশংসার জোয়ারে ভেসে চলেছেন পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা। ভারতের কাছে প্রথম ম্যাচে হারের পর যাঁরা সমালোচনার ঝড় তুলেছিলেন তাঁরাই আজ সরফরাজদের প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

ইমরান খান থেকে রামিজ রাজা প্রত্যেকেই পাকিস্তানের এই জয়ে উচ্ছসিত, সারা দিন একের পর এক প্রতিক্রিয়া দিয়ে গিয়েছেন। এবার সেই একই সুর শোনা গেল পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদির গলায়।

পাকিস্তানের এই জয়কে ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ের সঙ্গে তুলনা করে আফ্রিদি বলেন, “পাকিস্তানের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়কে ১৯৯২ বিশ্বকাপ জয়ের সঙ্গে একই আসনে রাখব আমি। ভারতের বিপক্ষে এই জয় দীর্ঘদিন মনে রাখবেন পাক সমর্থকরা।”

আরও পড়ুন:  ২০১৯ বিশ্বকাপের মহড়া সেরে রাখল তরুণ পাকিস্তান

পাকিস্তানের তরুণ তুর্কিদের প্রশংসা করে সোমবার আফ্রিদি বলেন, “বিগত ১৪ দিনে বিশ্ব ক্রিকেটে একের পর এক তরুণ প্রতিভা উপহার দিয়েছে পাকিস্তান। ফখর জামান, হাসান আলি, শাদাব খান এরা প্রত্যেকের অবদানই অনস্বীকার্য চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের পিছনে।”

ফখর-হাসানদের পাশাপাশি মহম্মদ আমিরের কথাও বিশেষ করে উল্লেখ করেন শাহিদ। তিনি বলেন, “ভারতের বিপক্ষে ফাইনালে আমিরের ভূমিকা ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ এবং নিজের নামের প্রতি সুবিচার করে বড় ম্যাচে এক জন তারকার যা করণীয় ঠিক তাই করেছে আমির। ভারতীয় ইনিংসের শুরুতে রোহিত-ধবন-বিরাটের উইকেট তুলে নিয়ে ভারতের ব্যাটিংয়ের ভিত নাড়িয়ে দেয় ও।”

ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা এবং ভারতের পর পাকিস্তানই হল একটা দল যারা আইসিসির তিনটি ইভেন্টেই নিজেদের জয়ের ধ্বজা উড়িয়েছেন।