প্রত্যাশা মতোই মহিলাদের ‘এলিট’ জাতীয় বক্সিং চ্যাম্পিয়নশিপে সোনা জিতলেন সনিয়া লাথার, সরযূবালা, সীমা পুনিয়া এবং সরিতা দেবী। আর দলগত বিভাগে চারটে সোনা এবং একটি রুপোর পদক জিতে সেরা হল রেলওয়ে স্পোর্টস প্রোমোশন বোর্ড (আরএসপিবি)।

রোহতক-এর জাতীয় বক্সিং অ্যাকাডেমির রিংয়ে এ দিন ফ্লাইওয়েট বিভাগে গত বছরের চ্যাম্পিয়ন ছিলেন মণিপুরের সরযূবালা। এ দিন হরিয়ানারা ঋতু-কে হারিয়ে তিনি ফের ভারত সেরা হলেও, তাঁর জয় খুব সহজে আসেনি। প্রবল লড়ে তিনি জেতেন ৩-২। শুরুতে ঋতুর-র আক্রমণের সামনে কিছুটা নড়ে গিয়েছিলেন সরযূ। কিন্তু লড়াই যত গড়িয়েছে ততই প্রতিকূলতাকে নিজের আয়ত্বে এনে ফেলে জয় ছিনিয়ে নেন তিনি। একই সঙ্গে টুর্নামেন্টের সেরা বক্সার-এর খেতাবও গিয়েছে তাঁর দখলে। অন্য দিকে, ফেদারওয়েট বিভাগে আরএসপিবি-র সনিয়া লাথার একতরফা লড়ে হারান এ বারই প্রথম সিনিয়র পর্যায়ে লড়তে নামা বিশ্ব মহিলা যুব বিশ্বকাপে সোনাজয়ী হরিয়ানার শশী চোপড়া-কে। ম্যাচের ফল ৫-০। দলগত বিভাগে অবশ্য জয়জয়কার আরএসপিবি-র।

বেল্ট কুস্তি: ইছাপুর বাণীমন্দির মাঠে সারা বাংলা বেল্ট কুস্তিতে বিভিন্ন বিভাগে সেরা প্রখর কিশোর সিনহা, রঞ্জন বসাক, বিশাল সোনকার, বিনোদ তিওয়ারি, সতীশ শর্মা, আয়ুষ চক্রবর্তী। মেয়েদের বিভাগে সেরা জেনিয়া সর্দার, কমল অগ্রবাল।

সুব্রত কাপ জয়ীদের সংবর্ধনা: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী চৌধুরি বীরেন্দ্র সিংহ বৃহস্পতিবার অনূর্ধ্ব-১৭ সুব্রত কাপ জয়ী সেল অ্যাকাডেমির ফুটবলারদের সংবর্ধিত করলেন কলকাতায়। জয়ী দলের জন্য পাঁচ লক্ষ টাকা আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।