মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আশীর্বাদ করে তাঁর কাজের ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়। সেই মন্তব্যের জন্য রাষ্ট্রপতির কড়া সমালোচনা করলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী। তাঁর সাফ কথা, ‘‘এর জন্য রাষ্ট্রপতির অবমাননা হচ্ছে মনে হলে, হোক! আমাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে দেওয়া হোক। তবু তাঁর কথার বিরোধিতা করব।’’ তৃণমূল অবশ্য পাল্টা অভিযোগ করেছে, রাষ্ট্রপতির সাংবিধানিক পদকে কাদায় টেনে নামাচ্ছেন অধীরবাবু।

বৃহস্পতিবার সোনারপুরে এক অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন রাষ্ট্রপতি। একই সময়ে তাঁর কন্যা শর্মিষ্ঠা মুখোপাধ্যায়ের এ রাজ্য থেকে তৃণমূলের সমর্থনে রাজ্যসভার প্রার্থী হওয়া নিয়ে চর্চা শুরু হয়েছে। এই আবহেই শুক্রবার অধীরবাবু বলেন, ‘‘প্রণববাবু রাজ্যের বাস্তবতা জানেন না, এটা হতে পারে না! শিক্ষা, শিল্প, স্বাস্থ্যে অগ্রগতি নিয়ে তিনি এত প্রশংসা কী ভাবে করলেন, সেটাই প্রশ্ন। ক’দিন আগেই পুরভোটে এত সন্ত্রাস হল, তা নিয়ে রাষ্ট্রপতি কোনও বার্তা দিলেন না। তাঁর ছেলে কংগ্রেসের টিকিটে লোকসভার সাংসদ! তার পরেও এত প্রশংসা?’’ অধীরবাবুর যুক্তি, শাসক দলের হাতে কং‌গ্রেস কর্মীরা মার খাচ্ছেন, মিথ্যা মামলা হচ্ছে। তার পরেও রাষ্ট্রপতির এমন প্রশংসায় ভুল বার্তা যাচ্ছে। অধীরবাবুর কথায়, ‘‘রাষ্ট্রপতি কিছু ক্ষণের জন্য বাংলায় এলেন আর মুখ্যমন্ত্রীর প্রশংসা করে চলে গেলেন, তার বিরোধিতা করছি।’’ এর আগেও এক বার রাষ্ট্রপতির মমতা-প্রশংসার বিরুদ্ধে মুখ খুলেছিলেন অধীর।

তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের প্রতিক্রিয়া, ‘‘যারা নিজেরা কাদায় আছে, তারা রাষ্ট্রপতি পদকে কাদায় টেনে নামাচ্ছে! এটা কংগ্রেসের প্রকৃত সংস্কৃতি নয়।’’