বাম এবং তৃণমূলের পরে আমানত বিমা (এফআরডিআই) বিলের প্রতিবাদে রাস্তায় নামল কংগ্রেসও। বাকি দুই পক্ষের মতো তাদেরও দাবি, ওই বিল প্রত্যাহার করতে হবে।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আঞ্চলিক দফতরের সামনে মঙ্গলবার বিক্ষোভে সামিল হয়েছিলেন বিধায়ক মনোজ চক্রবর্তী, আখরুজ্জামান এবং কংগ্রেসের কলকাতার নেতারা। প্রতিবাদ সভায় তাঁদের অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদীর জমানায় বড় শিল্পপতিদের অন্তত চার বার ব্যাঙ্কের ঋণ পরিশোধে ছাড় দেওয়া হয়েছে। অথচ সাধারণ মানুষের কষ্টার্জিত আমানত ব্যাঙ্কে সুরক্ষিত থাকার নিশ্চয়তা কেন্দ্রীয় সরকার কেড়ে নিতে চাইছে। ওই বিলটি এখন যৌথ সংসদীয় কমিটির বিবেচনাধীন। সেখানেও কংগ্রেস সাংসদেরা বিলের সেই সংশ্লিষ্ট ধারার বিরোধিতা করবেন। যে ধারা কার্যকর হলে ব্যাঙ্কের ঝাঁপ বন্ধ হওয়ার মতো পরিস্থিতি এলে গ্রাহকদের সর্বোচ্চ ১ লক্ষ টাকা আমানতের উপরেই বিমা প্রযোজ্য হওয়ার কথা।

একই দিনে দক্ষিণ কলকাতায় গড়িয়াহাট থেকে ত্রিকোণ পার্ক পর্যন্ত আমানত বিমা বিলের বিরুদ্ধে মিছিল করেছেন কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য, প্রদেশ কংগ্রেসের নেতা তুলসী মুখোপাধ্যায়েরা। মিছিল শেষে প্রধানমন্ত্রীর কুশপুতুল পু়ড়িয়ে বিক্ষোভ দেখান তাঁরা। যুব তৃণমূল ইতিমধ্যেই বিল প্রত্যাহারের দাবিতে যাদবপুর থেকে হাজরা পর্যন্ত মিছিল করেছে। রাজ্য জু়ড়ে সই সংগ্রহে নেমেছে বামেরা। মৌলালির রামলীলা ময়দানে আজ, বুধবার ১১৭টি গণসংগঠনের যৌথ মঞ্চ বিপিএমও-র উদ্যোগে রাজ্য কনভেনশন রয়েছে বিলটির প্রতিবাদেই। একই দাবিতে এসবিআই অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন এবং ‘ইয়ং বেঙ্গল’-এর আয়োজনে আজ থেকে শুক্রবার পর্যন্ত বাগবাজার, বৌবাজারও যাদবপুরে তিনটি প্রতিবাদ সভা ডাকা হয়েছে।