নেদারল্যান্ডস যাওয়ার পথে সোমবার দুবাইয়ে যাত্রা বিরতির সময়ে রাষ্ট্রপতি পদে বিজেপি প্রার্থীর নাম জেনে ‘আকাশ থেকে পড়লেন’ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর প্রথম প্রতিক্রিয়া, ‘‘দেশে কি আর কোনও নেতা ছিলেন না!’’ তাঁর মতে, রামনাথ কোবিন্দ বিজেপির দলিত শাখার সভাপতি ছিলেন বলেই তাঁকে রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী করেছে গেরুয়া শিবির। মমতা বলেন, ‘‘বিজেপি আমলে হয়তো উনি রাজ্যপাল হয়েছেন। আমি অনেক রাজ্যপালের নাম জানি, যাঁরা দীর্ঘদিন রাজনীতি করেছেন বা বিভিন্ন জগৎ থেকে এসেছেন। ওঁর নাম আমি কোনও দিন শুনিনি।’’

মুখ্যমন্ত্রী জানান, রাষ্ট্রপতি পদের জন্য রামনাথের নাম নিয়ে তাঁদের সঙ্গে কারও আলোচনা হয়নি। দেশে আরও অনেক নেতা ছিলেন। এমনকী, দলিত নেতাও আরও অনেক ছিলেন। তাঁর কথায়, ‘‘কে আর নারায়ণনও তো দলিত রাষ্ট্রপতি ছিলেন! এখন নাম ঘোষণা হওয়ার পরে কথা হলে বলব, এই ব্যক্তিকে জানি না। চিনি না। এক জনকে সমর্থন করতে হলে তাঁর সম্পর্কে ন্যূনতম তো জানতে হবে!’’

আরও পড়ুন:অশ্রুবৃষ্টিতে পঞ্চভূতে লীন সন্ন্যাসী

মমতা আরও জানান, তাঁরা চেয়েছিলেন, সর্বসম্মত ভাবে এমন কাউকে রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী করা হোক, যিনি সংবিধান এবং দেশকে রক্ষা করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে তাঁর পছন্দের তালিকায় ছিলেন বর্তমান রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়, লালকৃষ্ণ আডবাণী এবং সুষমা স্বরাজ।

তা হলে কি রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে? মমতার জবাব, ‘‘আমার মনে হয় না, উনি সর্বসম্মত প্রার্থী। সুতরাং, কী হবে না হবে, বিরোধী দল ঠিক করবে। আমরা যারা সর্বসম্মত প্রার্থী চেয়েছিলাম, সেই সব দলের বৈঠক আছে ২২ তারিখ।’’