অবশেষে ঘ্যানঘেনে বৃষ্টি থেকে রেহাই পেতে চলেছে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গ। উপগ্রহ-চিত্র খতিয়ে দেখে আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, বঙ্গোপসাগরের গভীর নিম্নচাপটি দুর্বল হয়ে গিয়েছে। তাই আজ, সোমবার থেকেই কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশির ভাগ এলাকায় বৃষ্টি বন্ধ হবে। তবে শীত ফিরে আসার সম্ভাবনা এখনই দেখা যাচ্ছে না। কারণ, চলতি সপ্তাহেই ফের একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা হাজির হতে পারে গাঙ্গেয় বঙ্গে। তেমনটা হলে ফের রাতের পারদ চড়বে বলেই মনে করছেন আবহবিদেরা।

রবিবার দিনভর আকাশ মেঘলা থাকায় এবং মাঝেমধ্যে বৃষ্টির নামায় কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে স্যাঁতসেঁতে ঠান্ডা মালুম হয়েছে। এ দিন কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৩.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি কম। কিন্তু আবহবিজ্ঞান এই ঠান্ডাকে শীত বলে না। কারণ, শীতের অভিধানে রাতের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের নীচে থাকাটাই দস্তুর। এ দিন কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২১.২ ডিগ্রি, স্বাভাবিকের থেকে পাঁচ ডিগ্রি বেশি! সোমবারেও পরিস্থিতির বদল হবে না বলেই মনে করছে হাওয়া অফিস।

কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতরের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল (পূর্বাঞ্চল) সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, সোমবার উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, নদিয়া, মুর্শিদাবাদে বিক্ষিপ্ত ভাবে বৃষ্টি হতে পারে। দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য এলাকায় বৃষ্টির আশঙ্কা নেই। তবে আকাশ আংশিক মেঘলা থাকবে, তাপমাত্রা তেমন নামবে না। তিনি বলেন, ‘‘মঙ্গলবার থেকে রাতের পারদে দু’ডিগ্রি পতন দেখা যেতে পারে। কিন্তু সেটা কত দিন স্থায়ী হবে, সংশয় আছে।’’ সংশয় কেন?

সঞ্জীববাবু জানান, উত্তর ভারত থেকে একটি পশ্চিমি ঝঞ্ঝা এ রাজ্যের দিকে বয়ে আসতে পারে। তার ফলে ফের পারদ চড়ার আশঙ্কা রয়েছে। আবহবিদেরা জানান, পশ্চিমি ঝঞ্ঝা আসলে ভূমধ্যসাগরীয় এলাকা থেকে বয়ে আসা ঠান্ডা ভারী জোলো হাওয়া। কাশ্মীর হয়ে তা ভারতে ঢোকে এবং তুষারপাত ঘটায়। তার ফলেই শীত পড়ে। কিন্তু ওই ঝঞ্ঝা যে-সব এলাকার উপর দিয়ে বয়ে যায়, সেখানে সে দেদার জলীয় বাষ্প ঢুকিয়ে দেওয়ায় সাময়িক ভাবে তাপমাত্রা বাড়ে। ‘‘১৬ ডিসেম্বরের পরে পারদ পতনের সম্ভাবনা রয়েছে,’’ আশ্বাস সঞ্জীববাবুর।

হাওয়া অফিসের খবর, ডিসেম্বরের দ্বিতীয় সপ্তাহে কলকাতায় রাতের তাপমাত্রা সাধারণ ভাবে ১৪ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকে। উত্তুরে হাওয়ার দাপটও শুরু হয়ে যায়। সেই সব লক্ষণ দেখেই শীতের থিতু হওয়ার ব্যাপারে পূর্বাভাস দেয় আবহাওয়া দফতর। কিন্তু এ বার গভীর নিম্নচাপের ধাক্কায় দফারফা হয়ে যাওয়া শীত কবে থিতু হবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে? এর স্পষ্ট জবাব নেই আবহবিদদের কাছে। তাঁদের এক জন বলছেন, আবহাওয়া ক্রমাগত খামখেয়ালি আচরণ করে চলেছে। নিম্নচাপ-পশ্চিমি ঝঞ্ঝার দাপট কাটলেই হয়তো উত্তুরে হাওয়া ঢুকে শীতকে জোরালো করে তুলবে।

শীতপ্রত্যাশী বাঙালি এই আশাতেই বুক বাঁধছে।