দিন কয়েক আগেই আনন্দ প্লাসের কাছে তাঁর আর রাজের প্রেমের রসায়ন নিয়ে অনেক কথা বলেছিলেন শুভশ্রী। অল্প সময়ের মধ্যেই সব কিছু উল্টে গেল! বুধবার একটাই গুজবে সরগরম রইল টলিউড, রাজ-শুভশ্রীর বিচ্ছেদ হয়ে গিয়েছে। এবং এর নেপথ্যে রয়েছেন মিমি চক্রবর্তী। যিনি রাজের প্রাক্তন।

মিমি ঘোরতর অসুস্থ বলেও শোনা যাচ্ছিল। এ প্রসঙ্গে মিমির কাছে প্রশ্ন করা হলে তিনি প্রায় আকাশ থেকে পড়েন! বলেন, ‘‘লুজ মোশনে ভুগছি। এর বেশি কিচ্ছু হয়নি।’’ রাজ-শুভশ্রীর বিচ্ছেদের কথা শুনে অবশ্য বেশ জোরে ‘হোয়াট’ বললেন! বিস্ময় ঝরে পড়ছিল তাঁর গলায়। তবে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হলেন না। কিন্তু আপনার জন্যই নাকি এই বিচ্ছেদ? ‘‘আমি এ সবের কিছুই জানি না। তাই বলতেও পারব না,’’ জবাব মিমির।

আরও পড়ুন, রাজ ও তার বর্তমান প্রেমিকার সম্পর্ক ভাঙার কারণ আমি! রাবিশ!

শহরের এক প্রযোজক সংস্থার নাকি চাপ ছিল রাজের উপর। এটাও রাজ-শুভশ্রীর বিচ্ছেদের অন্যতম কারণ বলে মনে করা হচ্ছে। আসলে, মিমি সেই ক্যাম্পের যতটা ঘনিষ্ঠ, শুভশ্রী ততটা নন। আর রাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের ব্যথা যে মিমির উপর কতটা ছিল, সেটা নায়িকা আগেই স্পষ্ট করেছিলেন। পরে অবশ্য এও বলেছেন যে, বিচ্ছেদটা তিনি সামলে নিয়েছেন। কিন্তু মিমির ঘনিষ্ঠরা জানেন, রাজ তাঁর কাছে কতটা গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন।

কিন্তু যাঁদের মাখোমাখো সম্পর্ক নিয়ে এত চর্চা হচ্ছিল, তাঁরা কী বলছেন? রাজ বিষয়টা পুরোপুরি অস্বীকার করে বললেন, ‘‘আমাদের সম্পর্কে কোনও ভাঙন ধরেনি।’’ শুভশ্রীর ঘনিষ্ঠ-সূত্রে খবর, তিনি নাকি বেশ ভেঙে পড়েছেন। যদিও নায়িকা এ ব্যাপারে কিছু খোলসা করলেন না। শুভশ্রীর কথায়, ‘‘কারা এ সব বলছে জানি না। আমি এখন কিছু বলার মতো জায়গায় নেই।’’ তাঁর কথাতেই ধোঁয়াশা স্পষ্ট।

পুনশ্চ: শোনা যাচ্ছে, ওই প্রযোজক সংস্থার সঙ্গে রাজের আগামী ছবির নায়িকা মিমি।