নতুন বছর একটু অন্য ভাবেই শুরু করল হিমাচল প্রদেশের অপূর্ব সুন্দর জেলা কুলু। নারী সম্মান সরকারি প্রকল্পের মাধ্যমে ঋতুচক্র সংক্রান্ত কুসংস্কার ভেঙে ফেলার শপথ নিল পাহাড় কোলের এই শহর।

সোমবার বছরের প্রথম দিন এই ক্যাম্পেনের সূচনা করে কুলুর ডেপুটি কমিশনার ইউনুস খান বলেন, হিমাচল প্রদেশকে ‘দেবভূমি’ বলা হয়। অথচ এখনও এখানে ঋতুমতী মহিলাদের অচ্ছুত্ করে রাখা হয়। এখনও প্রতি মাসে কুলু জেলার ২০৪টি পঞ্চায়েতের মধ্যে ৯১টিতে ঋতুকালীন সময়ে বহু মহিলার গোয়ালঘরে রাত কাটানোর রীতি রয়েছে। শুধু কুলুতেই নয়, হিমাচলের অনেক প্রত্যন্ত এলাকাতেই এখনও এই রীতি প্রচলিত রয়েছে। 

১ জানুয়ারি কুলুর নউজানা গ্রাম থেকে শুরু হল এই ক্যাম্পেন। কুলু জেলা পরিষদের সভাপতি রোহিনি চৌধুরী জানান, জেলায় প্রতিটি বাড়িতে গিয়ে খোঁজ নিয়ে জানা হবে, সেই পরিবারে ঋতুমতী মহিলাদের এ ভাবে অচ্ছুত্ করে রাখা হয় কি না। তার পর সেই মহিলাদের নিয়ে শুরু হবে ক্যাম্পেন।

আরও পড়ুন: পিরিয়ডের সময় আর স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করেন না দিয়া

আরও পড়ুন: ঋতুচক্র বুঝিয়ে দিতে নতুন বন্ধু দোলনদি

ক্যাম্পেন

অঙ্গনওয়াড়ির সাহায্যে পঞ্চায়েত স্তরে ক্যাম্পেন শুরু হবে কুলু জেলায়। স্বাস্থ্যকর্মী ও মহিলাদের নিয়ে ছোট ছোট দলের পাশাপাশি বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠন ও মন্দির কমিটিও এগিয়ে এসেছে এই সরকারি উদ্যোগে।

‘এই ধরনের খবর আপনার ইনবক্সে সরাসরি পেতে এখানে ক্লিক করুন’

হেল্পলাইন

ক্যাম্পেন সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্যের জন্য খোলা হয়েছে হেল্পলাইন নম্বর ০১৯০২-২২২১০৫। বিনামূল্যে মনোবিদ ও চিকিত্সকদের কাউন্সেলিংয়ের সুবিধাও পাওয়া যাবে এই নম্বরে ফোন করলে।