সব অভিযোগই ভুয়ো, অ্যান্টিগা থেকে ভিডিয়ো বার্তা মেহুলের

মেহুল চোক্সী। ছবি: ভিডিয়ো থেকে নেওয়া।

এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি) তাঁর নামে যে অভিযোগ করেছে, তার সবটাই ভিত্তিহীন এবং ভুয়ো। একটি ভিডিয়ো বার্তায় এমনটাই দাবি করেছেন ব্যাঙ্ক প্রতারণায় অভিযুক্ত মেহুল চোক্সী। পাশাপাশি তিনি কেন দেশে ফিরতে পারছেন না, তার কারণও ওই ভিডিয়োয় জানিয়েছেন। চোক্সীর দাবি, পাসপোর্ট বাতিল করার ফলেই তিনি দেশে ফিরতে পারছেন না।

মঙ্গলবার অ্যান্টিগা থেকে মেহুলের একটি ভিডিয়ো বার্তা প্রকাশ করা হয়েছে। স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে মেহুল অবশ্য ওই ভিডিয়ো প্রকাশ করেননি। সংবাদ সংস্থা এএনআই মেহুলের আইনজীবীর মাধ্যমে কিছু প্রশ্ন করেছিল তাঁকে। সেই প্রশ্নেরই জবাব দিয়েছেন মেহুল। পুরোটা ভিডিয়োয় ধরা রয়েছে। সেই ভিডিয়োই এ দিন প্রকাশ করেছে এএনআই।

মেহুলকে সেই ভিডিয়োয় বলতে শোনা গিয়েছে, ‘‘ইডি আমার বিরুদ্ধে যা অভিযোগ এনেছে, তার পুরোটাই ভুয়ো এবং ভিত্তিহীন। বেআইনি ভাবে ওরা আমার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করেছে।’’ তাঁর আরও দাবি, ‘‘বিদেশ মন্ত্রক আমার পাসপোর্ট বাতিল করে দিয়েছে। আমি দেশে ফিরতে পারছি না। আমার যে পাসপোর্ট বাতিল করা হয়েছে, সেটা গত ১৬ ফেব্রুয়ারি ওদের পাঠানো একটা ইমেল থেকে জানতে পারি। ২০ ফেব্রুয়ারি পাসপোর্ট ফিরে পেতে পাল্টা মেল করেছিলাম। কিন্তু কোনও উত্তর পাইনি। এমনকি কেন পাসপোর্ট বাতিল করা হল তার কারণও আমাকে জানানো হয়নি।’’

আরও পড়ুন: গডকড়ীর ফর্মুলা, ৫৫ টাকায় পেট্রল, ৫০ টাকায় ডিজেল, যদি...

গত নভেম্বরে অ্যান্টিগার নাগরিকত্ব পেয়েছিলেন মেহুল। পরে চলতি বছরের জানুয়ারিতে পিএনবি-প্রতারণার ঘটনা সামনে আসার আগেই ভারত ছেড়ে চম্পট দেন তিনি। গত ১৫ জানুয়ারি অ্যান্টিগার নাগরিক হিসাবে শপথ নেন তিনি। এর ঠিক পরেই, ২৯ জানুয়ারি সিবিআই মেহুল ও তাঁর মামা নীরব মোদীর বিরুদ্ধে ১৩ হাজার ৫০০ কোটি টাকার জালিয়াতি মামলা রুজু করে।

 

বর্তমানে মেহুল চোক্সী ক্যারিবিয়ান দ্বীপরাষ্ট্র অ্যান্টিগায় রয়েছেন। তার পর থেকেই মেহুলকে দেশে ফেরাতে উদ্যোগী হয়েছে ভারত। ভারতের সঙ্গে অ্যান্টিগার কোনও প্রত্যর্পণ চুক্তি না থাকায় মেহুলকে ভারতে ফেরানো যাচ্ছে না।