স্পেস স্টেশনের দেওয়ালে ফুটো, আঙুল দিয়ে আটকালেন নভশ্চর, কাটল বড় বিপদ


বায়ু চাপ কমে যাওয়ায় সন্দেহ হয়েছিল মহাকাশচারীদের। বিষয়টির কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়েই নজর পড়ে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে একটি ফুটোর দিকে। দেখা যায়, মহাকাশ স্টেশনের রাশিয়ার অংশে দু’ মিলিমিটারের এক ছিদ্র তৈরি হয়েছে।

বর্তমানে তিনটি মহাকাশযান আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনে রয়েছে। এগুলোর একটি রাশিয়ার সয়ুজ। সেটিতেই দেখা দিয়েছিল এই ছিদ্র। আর তা দিয়েই অক্সিজেন যুক্ত বাতাস বের হয়ে যাচ্ছিল। ধীরে ধীরে চাপ কমছিল মহাকাশ কেন্দ্রটির।

গত বৃহস্পতিবার ছিদ্রটি প্রথমে নজের আসে আলেকজ়ান্ডার গের্স্টের। তৎক্ষণাৎ তিনি আঙুল দিয়ে তা চেপে ধরেন, যাতে বায়ু আর বেরিয়ে যেতে না পারে। এর পরই দ্রুততার সঙ্গে তা মেরামতির ব্যবস্থা করা হয়। আনা হয় বিশেষ টেপ। আর তা দিয়েই বন্ধ করা হয় সেই ছিদ্র।

 

 

আরও পড়ুন: বৃহস্পতির বায়ুমণ্ডলের গভীরে জলের ইঙ্গিত, রয়েছে প্রচুর অক্সিজেনও

আরও পড়ুন: তিন নভশ্চরকে মহাকাশে পাঠাবে ভারত​

পরে নাসার তরফে একটি টুইট করে পুরো বিষয়টি জানানো হয়। জানা গিয়েছে, যদি দ্রুততার সঙ্গে ছিদ্র বন্ধ করা না যেত, তা হতে বড়সড় সমস্যা তৈরি হতো। কারণ ছিদ্র বন্ধ করা না হলে, ১৮ দিনের মধ্যে ভিতরের সব অক্সিজেন বেরিয়ে যেত। তা হলে বড় কোনও অঘটন ঘটার সম্ভাবনা তৈরি হত। মনে করা হচ্ছে কোনও মহাজাগতিক বর্জ্যের আঘাতেই ওই ছিদ্রের সৃষ্টি হয়েছিল।