এই ব্লকবাস্টার ফিল্মগুলি করতে রাজিই হননি দীপিকা পাড়ুকোন!

বলিউডকে বহু ব্লকবাস্টার ফিল্ম উপহার দিয়েছেন দীপিকা পাড়ুকোন। পাশাপাশি, বহু ব্লকবাস্টার ফিল্ম ছেড়েও দিয়েছেন। শুধু কি বলিউড! হলিউডে কাজ করার বিষয়েও ‘না’ বলতে দেরি করেননি। পরে সেই ফিল্মগুলোই বক্স অফিসে তুমুল সফল হয়েছে। জানেন কোন কোন ফিল্ম ছেড়েছেন দীপিকা?
‘প্রেম রতন ধন পায়ো’-তে সোনম কপূর নয়, দীপিকা পাড়ুকোনের সঙ্গে প্রেম করার কথা ছিল সলমন খানের। সোনমের আগে দীপিকাকেই যে এই ফিল্মের অফার দিয়েছিলেন ফিল্মের ডিকেক্টর সুরজ বরজাতিয়া। তবে সঞ্জয় লীলা ভন্সালীর ‘বাজিরাও মস্তানি’-র জন্য সে অফারে আর ‘হ্যাঁ’ বলেননি দীপিকা। প্রায় ৪০০ কোটি টাকার ব্যবসা করেছে ‘প্রেম রতন... ’।
২০১২-তে ‘জব তক হ্যায় জান’ রিলিজের আগেই মারা যান এই ফিল্মের ডিরেক্টর যশ চোপড়া। মীরা থাপরের চরিত্রে যশের প্রথম পছন্দ ছিলেন দীপিকা। যদিও তাতে সায় দেননি তিনি। ফলে ক্যাটরিনা কাইফের দিকেই চলে যায় ‘জব তক... ’। ‘থ্রি ইডিয়টস’, ‘মাই নেম ইজ় খান’-এর পর বিদেশে সবচেয়ে বেশি রোজগার করেছিল এই ফিল্মটিই।
সলমন-শাহরুখদের পর আমির খানকেও ‘না’ বলে দিয়েছিলেন দীপিকা। ‘ধুম ৩’-তে তাঁরই কাজ করার কথা হয়েছিল। দীপকা রাজি না হওয়ায় ফের ক্যাটরিনাকেই এই ফিল্মের স্ক্রিপ্ট পাঠানো হয়েছিল। ১৭৫ কোটি টাকা বাজেটের এই ফিল্ম শেষমেশ ব্যবসা করেছিল ৫০০ কোটি টাকার।
আরও এক বার সলমন খানের সঙ্গে কাজ করতে আপত্তি জানিয়েছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। এ বার ২০১৪-র অ্যাকশন–ড্রামা ‘কিক’। দীপিকা রাজি না হওয়ায় আর দেরি করেননি ফিল্মের ডিরেক্টর সাজিদ নাদিয়াডওয়ালা। সোজা জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ়কে নিয়ে নেন হিরোইনের রোলে।
শুধু কি বলিউডের ফিল্ম, হলিউডের বড় ব্যানারকেও নাকচ করেছেন দীপিকা পাড়ুকোন। ভিন ডিজ়েলের সঙ্গে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস ৭’-এ কাজ করার সুযোগ থাকলেও তাতে টলেননি তিনি। একেবারে শেষ মুহূর্তে ওই ফিল্ম থেকে সরে আসেন দীপিকা। পরে ১০০ কোটি ডলারের ব্যবসা করেছিল ওই ফিল্ম।