এই টেলি তারকারা এক একটা পর্বে কত পারিশ্রমিক পান জানেন?

বলি তারকাদের পারিশ্রমিকের কথা শুনলে আমরা চমকে যাই। তবে পারিশ্রমিকের দিক থেকে কিন্তু পিছিয়ে নেই টেলিভিশনের তারকারাও। এক একটা এপিসোডে প্রিয় টেলি তারকারা কত টাকা পারিশ্রমিক পান, জানলে চমকে যাবেন।
বেশ কিছু দিন ধরেই লোকচক্ষুর আড়ালে চলে গিয়েছিলেন কমেডিয়ান কপিল শর্মা। তবে নতুন কমেডি শো নিয়ে আবার ফিরছেন কপিল। আর যে সময়ে কপিল ‘কমেডি নইটস’ করতেন, সে সময়ে প্রতি পর্বের জন্য ৬০ থেকে ৮০ লক্ষ টাকার কাছাকাছি পারিশ্রমিক পেতেন।
কমেডি শো থেকেই মূলত জনপ্রিয় হয়েছিলেন সুনীল গ্রোভার। আর তার পরে ডক্টর গুলাটির চরিত্রে দর্শকদের মন জিতে নিয়েছিলেন সুনীল। সিনেমাও করেছেন গুটিকয়েক। কমেডি শো’তে প্রতি পর্বে সুনীল নিতেন প্রায় ১০ থেকে ১২ লক্ষ টাকা।
টেলি ইন্ডাস্ট্রির অন্যতম চর্চিত নাম দিব্যাঙ্কা ত্রিপাঠি। ‘বনু ম্যায় তেরি দুলহন’ সিরিয়ালটি থেকেই ব্যাপক জনপ্রিয় হয়ে যান দিব্যাঙ্কা। আর এই দিব্যাঙ্কাই এক-একটা পর্বের জন্য পারিশ্রমিক নেন প্রায় ১ লক্ষ টাকা।
‘ইয়ে রিশতা কেয়া কেহলাতা হ্যয়’ সিরিয়ালটি থেকে জনপ্রিয় হন হিনা খান। তার পরে আর ফিরে তাকাতে হয়নি হিনাকে। গত বার ‘বিগ বস’ হাউসেও দেখা গিয়েছিল অভিনেত্রীকে। এই হিনাই সিরিয়ালের এক একটা এপিসোডের জন্য প্রায় ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা নেন।
সঞ্চালক মণীশ পলও কিছু কম যান না। কমেডি শো হোক আর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান, মণীশের সঞ্চালনা দর্শকর বেশ পছন্দের। ‘ঝলক দিখলাজা’-র সবকটা শো সঞ্চালনা করতে মণীশ নিয়েছিলেন ১ কোটি টাকারও বেশি।
‘ইয়ে হ্যয় মহব্বতে’এর সেই রমন ভাল্লাকে মনে আছে? এই সিরিয়ালটি থেকেই জনপ্রিয় হয়েছিলেন অভিনেতা কর্ণ পটেল। এখনও একনাগাড়ে সিরিয়াল করে যাচ্ছেন কর্ণ। প্রত্যেক পর্বে কর্ণ প্রায় ১ লক্ষ ২৫ হাজার টাকা পারিশ্রমিক নেন।
জেনিফার উইঞ্জেটও টেলিভিশনের জনপ্রিয় মুখ। ‘কসৌটি জিন্দেগি কে’ সিরিয়াল থেকেই টেলিভিশনের সফর শুরু করেছিলেন জেনিফার। প্রায় ১ লক্ষ টাকা পারিশ্রমিক নেন জেনিফার।