মেয়েদের এই দৈনন্দিন স্বভাবগুলি কতখানি ক্ষতিকারক, জানেন?

দৈনন্দিন জীবনে বেশ কিছু ঘটনা মেয়েরা করেই থাকেন, যা হয়তো আলাদা করে ভাবারও সময় থাকে না। কিন্তু সে সব ছোট ছোট ভুল আদতে ক্ষতি করে নিজেদেরই। এ সবের বদল না ঘটলে কিন্তু পরে বড় মাশুল দিতে হতে পারে। জানেন কি, প্রতি দিন মেয়েদের কোন কোন অভ্যাস সমস্যায় ফেলছে? ছবি: শাটারস্টক।
সানস্ক্রিন: মেয়েদের ত্বক ছেলেদের তুলনায় বেশি নরম ও স্পর্শকাতর। তাই যত্নও নিতে হয় বেশি। যত্নের অন্যতম উপাদান সানস্ক্রিন। সূর্যের অতি বেগুনি রশ্মি থেকে ত্বক বাঁচাতে এর জুড়ি নেই। কিন্তু বেশির ভাগ মেয়েই বাড়ি থেকে বেরনোর আগে কেবল মুখে মাখেন তা। অথচ, শরীরের সব খোলা অংশেই সানস্ক্রিন মাখা উচিত। ফলে ত্বক পুড়ছে সহজেই! ছবি: পিক্সঅ্যাবে।
ব্লটিং পেপার: মেক আপের পর সিংহ ভাগ মেয়েই ভুলে যান ব্লটিং পেপারের ব্যবহার। ব্লটিং পেপার ত্বকের অতিরিক্ত মেক আপ শুষে নেয়। কিন্তু তা না করায় মুখে ভাল করে মেক আপ বসে না। অতিরিক্ত মেক আপ লেগে থাকে। একটু ঘাম হলে, বা বেশ খানিক ক্ষণ সময় গড়ালেই তা আরও বেশি করে ফুটে উঠে মুখকে ফ্যাকাশে করে তোলে। ছবি: পিক্সঅ্যাবে।
ভারী ব্যাগ: ছোটখাটো জিনিসও ব্যাগ থেকে বার করতে চান না মেয়েরা। কবেকার শপিংয়ের বিল, বাসের টিকিট, প্রতি দিনের অপ্রয়োজনীয় কাগজপত্রে ভরে ওঠে ব্যাগ। তা ছাড়া অনেক মেয়েই ব্যাগে জিনিস ভরতেই থাকেন, ‘যদি কাজে লাগে’-র বিশ্বাসে। এই অভ্যাসে স্পনডিলাইটিসে ভোগেন অনেকেই। ছবি: আনস্প্ল্যাশ।
মুখে হাত: মেয়েদের অনেকেই ঘন ঘন মুখে হাত বোলান। এমন অভ্যাস থাকলে তা বদলানো উচিত। এমনিতেই মেয়েদের ত্বক স্পর্শকাতর। হাত না ধুয়ে তাই ঘন ঘন মুখে হাত দিলে তা ত্বকের ক্ষতি করে। চর্মরোগ বিশেষজ্ঞদের দাবী, ব্রণ হওয়ার একটি কারণও এই অপরিষ্কার হাত ঘন ঘন মুখে দেওয়া। ছবি: শাটারস্টক।
চোখ কচলানো: অকারণে চোখের কোণে হাত দেওয়া ও চোখ কচলানোও ক্ষতি করে। চোখে লেন্স পরলে ভাল করে চোখ পরিষ্কার করার পর লেন্স পরুন। তাতেও যদি চোখ কড়কড় করে, তবে তা নিয়ে চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন। কিন্তু ঘন ঘন চোখ কচলালে বা চোখের কোণে হাত দিলে কাজল-লাইনার তো ঘেঁটে যায়-ই, সঙ্গে অপরিষ্কার হাত থেকে চোখে ইনফেকশানের ভয়ও থাকে। ছবি: শাটারস্টক।
হেয়ার ড্রায়ার: বেরনোর তাড়া, হাতে বেশি সময় নেই, তবু শ্যাম্পু করতেই হবে। এমন দিনে বেশির ভাগ মহিলাই দ্রুত চুল শুকোতে হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু জানেন কি, ঘন ঘন হেয়ার ড্রায়ার ব্যবহার ভয়ানক ক্ষতি করে চুলের। ড্রায়ারের গরম হাওয়া চুলের গোড়া আলগা করে, চুলকে ফাটিয়ে দেয় সহজেই। ছবি: পিক্সঅ্যাবে।