Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper

স্বনির্ভর গোষ্ঠীর ন্যাপকিন বিলি স্কুলে

নারী-বাহিনী: ন্যাপকিন তৈরি করছেন স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা। প্রতাপপুরে। ছবি: সব্যসাচী ইসলাম

এ যেন ‘এক ঢিলে দুই পাখি’। এক দিকে এলাকার মহিলা দের স্বনির্ভর করা, অন্য দিকে স্কুলছাত্রীদের স্বাস্থ্যবিধি পালন করানো। এ কাজেই এগিয়েছিলেন এক যুবক।  শুক্রবার সেই উদ্যোগের প্রথম পদক্ষেপ হিসেবে গ্রামের হাইস্কুলে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেওয়া হল ছাত্রীদের। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বিধায়ক মিল্টন রসিদ, তথ্যমিত্র কেন্দ্রের জেলা ইন-চার্জ গৌতম সরকার, প্রতাপপুর হাইস্কুলের শিক্ষকদের একাংশ।

স্থানীয় স্বনির্ভর গোষ্ঠির মহিলারা অনুষ্ঠানে তাঁদের তৈরি স্যানিটারি ন্যাপকিন ছাত্রীদের হাতে তুলে দিলেন। একইসঙ্গে দেখালেন কী করে বিজ্ঞানসম্মত ভাবে সে সব তৈরি করছেন। 

রানিগঞ্জ–মোড়গ্রাম ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে প্রতাপপুর হাইস্কুল। সেই স্কুলের পাশেই গ্রামবাসী সওকত আলির তথ্যমিত্র কেন্দ্র। আধার কার্ড থেকে শুরু করে বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পের সমস্ত তথ্য, সুবিধা মেলে ওই কেন্দ্রে। 

সম্প্রতি কেন্দ্রীয় সরকারের ‘স্ত্রী স্বাভিমান’ প্রকল্পে তথ্যমিত্র কেন্দ্রের সহযোগিতায় স্কুল ও স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণের কাজ শুরু করেন সওকত আলি। বিজ্ঞানসম্মত পদ্ধতিতে স্যানিটারি ন্যাপকিন তৈরির জন্য সাড়ে তিন লক্ষ টাকা দামের যন্ত্র নিজের বাড়িতে বসান সওকত। এলাকার চারটি স্বনির্ভর দলের মহিলাদের মধ্যে থেকে ২০ জনকে ওই কাজে সামিলও করেন তিনি।

সওকত আলি জানান, কেন্দ্রীয় ওই প্রকল্পে রামপুরহাট ১, রামপুরহাট ২ সহ রামপুরহাট পুরসভা এবং নলহাটি ১, নলহাটি ২, নলহাটি পুরসভা এলাকার ২৯টি হাইস্কুলে ছাত্রীদের বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন দেওয়া হবে। স্থানীয় স্বাস্থ্যকেন্দ্রগুলিতেও বিনামূল্যে তা মিলবে। বিনিময়ে বছরে একবার তথ্যমিত্র কেন্দ্রের মাধ্যমে কেন্দ্রীয় প্রকল্পে প্রতি উপভোক্তা পিছু ৫০০ টাকা পাওয়া যাবে।

স্থানীয় স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্য বীনা খাতুন, মৌসুমী খাতুন, রূপালী বিবি জানান, গ্রামাঞ্চলে স্কুলের মেয়েরা এখনও সঠিক স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে পারে না। এর ফলে বিভিন্ন স্ত্রীরোগের শিকার হয়। সে দিকে নজর রেখেই স্কুলে স্কুলে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিলি করার প্রকল্প শুরু হয়েছে। সঙ্গে তাঁরা নিজেরাও স্বনির্ভর প্রকল্পে যুক্ত হয়ে আর্থিক স্বাধীনতা পেয়েছেন। তাঁরা বলেন, ‘‘এই প্রকল্পে যত বেশি ছাত্রী, মহিলারা সামিল হবেন তত বেশি আমরাও সুবিধা পাব। পরে খোলা বাজারেও স্বল্পমূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিক্রি করা যাবে।’’ 

শুক্রবার সকালে হাঁসন কেন্দ্রের বিধায়ক মিল্টন রশিদ প্রতাপপুর হাইস্কুলের ছাত্রীদের মধ্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিলি করেন । মিল্টন রশিদ জানান, গ্রামের মহিলাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার ক্ষেত্রে এই উদ্যোগ প্রশংসার দাবি রাখে।

তথ্যমিত্র কেন্দ্র প্রকল্পের জেলা ইন-চার্জ গৌতমবাবু জানান, যন্ত্রের মাধ্যমে তৈরি ন্যাপকিনগুলি জীবাণুমুক্ত করা হয়। পরিবেশবান্ধব উপকরণ দিয়েই সেগুলি তৈরি করা হয়। প্রতাপপুর হাইস্কুলের ছাত্রী মুশরিমা খাতুন, আরিফা পারভিন, মমতা পারভিন জানায়, ‘‘প্রতি মাসে বিনামূল্যে স্কুলে ন্যাপকিন মিললে অনেক সুবিধা হবে।’’


Anandabazar Patrika Read Latest Bengali News, Breaking News in Bangla from West Bengal's Leading Newspaper