সিলেটের শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে ছুরিবিদ্ধ হলেন অধ্যাপক জাফর ইকবাল।

শনিবার বিকাল ৫ টার পর ওই ঘটনা ঘটে। ছুরিকাহত অধ্যাপককে সিলেটের ওসমানি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে।
তাঁর ব্যাক্তিগত সহকারী জয়নাল আবেদিন জানিয়েছেন, অধ্যাপক ইকবাল হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হাসপাতালের তরফে প্রাথমিক ভাবে জানানো হয়েছে, অধ্যাপক ইকবাল বিপন্মুক্ত।

হামলাকারী ধরা পড়েছেন বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মাহমুদ হাসান জানিয়েছেন। পুলিশ বলছে, হামলাকারীর পূর্ণাঙ্গ পরিচয় এখনও জানা যায়নি।

শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিকাল ও ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অধ্যাপক ইকবাল। সেথানেই পিছন থেকে তাঁর শরীরের বিভিন্ন অংশে ছুরি মারা হয়।

আরও পড়ুন- রোহিঙ্গা: বাংলাদেশ সীমান্তে মায়ানমার সেনার হামলা?​

আরও পড়ুন- মৌলবাদ রুখতে দিল্লিকে চায় ঢাকা​

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রোক্টর জহিরউদ্দিন আহমেদ বলেছেন, ‘‘মঞ্চের পিছন থেকে এসে একটি ছেলে ছুরি মারে ওঁর (অধ্যাপক ইকবালের) গলা, বুক ও মুখে। তবে সঙ্গে সঙ্গেই পুলিশ হামলাকারীকে গ্রেফতার করে।’’

অধ্যাপক জাফর ইকবাল বরাবরই বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে লড়াই করেছেন। তবে কী কারণে এই হামলা, তা এখনও জানা যায়নি।

হামলার প্রতিবাদে ছাত্রছাত্রীরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। ঢাকার শাহবাগেও প্রতিবাদ সমাবেশের ডাক দেওয়া হয়েছে।