Advertisement
০৬ ডিসেম্বর ২০২২
সুপ্রিম কোর্টে শুনানি আজ

লগ্নিকারীদের ২০ হাজার কোটি ফেরাতে নতুন প্রস্তাব সহারার

বাইশ দিন কেটে গেল তিহাড় জেলে বন্দী সহারা কর্ণধার সুব্রত রায়। নিজের মুক্তি প্রার্থনা করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদনও করেছেন তিনি। যার শুনানি হওয়ার কথা আজ, বুধবার। আর তার ঠিক আগের দিন, অর্থাৎ মঙ্গলবার লগ্নিকারীদের টাকা ফেরানোর লক্ষ্যে সেবির কাছে ২০,০০০ কোটি জমা দেওয়ার নতুন প্রস্তাব পেশ করল সহারা গোষ্ঠী। মূল লক্ষ্য, এ বার অন্তত সুব্রতবাবুর মুক্তি নিশ্চিত করা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৬ মার্চ ২০১৪ ০১:৫১
Share: Save:

বাইশ দিন কেটে গেল তিহাড় জেলে বন্দী সহারা কর্ণধার সুব্রত রায়। নিজের মুক্তি প্রার্থনা করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদনও করেছেন তিনি। যার শুনানি হওয়ার কথা আজ, বুধবার। আর তার ঠিক আগের দিন, অর্থাৎ মঙ্গলবার লগ্নিকারীদের টাকা ফেরানোর লক্ষ্যে সেবির কাছে ২০,০০০ কোটি জমা দেওয়ার নতুন প্রস্তাব পেশ করল সহারা গোষ্ঠী। মূল লক্ষ্য, এ বার অন্তত সুব্রতবাবুর মুক্তি নিশ্চিত করা। কারণ এর আগের শুনানিতেই সহারা কর্তার জামিনের আবেদন নাকচ করে সুপ্রিম কোর্ট সাফ জানিয়ে দিয়েছিল, গোষ্ঠী আগে লগ্নিকারীদের ২০ হাজার কোটি টাকা ফেরত দেওয়ার নতুন লিখিত প্রস্তাব পেশ করুক। তারপর তাঁর জামিনের আবেদন বিবেচনা করবে শীর্ষ আদালত।

Advertisement

বিচারপতি কে এস রাধাকৃষ্ণন ও জে এস খেহর-কে নিয়ে গঠিত সর্বোচ্চ আদালতের দুই সদস্যের বেঞ্চ অবশ্য মঙ্গলবার পেশ করা এই প্রস্তাব শুনতে চায়নি। বেঞ্চের দাবি, বুধবার বিধিসম্মত ভাবে তা রেজিস্ট্রি করে আদালতে জমা দিতে হবে। আর তার পরই প্রস্তাবটি বিবেচনা করে দেখবে তারা।

এ দিন সহারার নতুন প্রস্তাবে ২০১৫-র ৩১ মার্চের মধ্যেই ২০,০০০ হাজার কোটি টাকা সেবির কাছে জমা দিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টকে আশ্বস্ত করে সেখানে বলা হয়েছে যে, প্রস্তাব মঞ্জুর হওয়ার পর প্রথম তিনটি কাজের দিনের মধ্যেই সংস্থা জমা করবে ২,৫০০ কোটি। এর পর তিনটি কিস্তিতে দেওয়া হবে ৩,৫০০ কোটি করে। ওই তিন কিস্তির দিনও নির্দিষ্ট করে দিয়েছে তারা। ৩০ জুন, ৩০ সেপ্টেম্বর ও ৩১ ডিসেম্বর। এর পর বাদবাকি ৭,০০০ কোটি টাকা দেওয়া হবে ২০১৫-র ৩১ মার্চের মধ্যেই।

প্রসঙ্গত, এর আগের বারেও এ ভাবেই কিস্তিতে টাকা জমা দেওয়ার একটি প্রস্তাব পেশ করেছিল সংস্থাটি। সেখানে তারা সময় নিয়েছিল ২০১৫-র জুলাই পর্যন্ত। কিন্তু সেবি তখন অভিযোগ তোলে যে, ওই প্রস্তাবে সহারার দাখিল করা হিসাব অনুযায়ী টাকার অঙ্ক ১৭,৪০০ কোটি। যা পাওনার তুলনায় অনেক কম। এর পর ওই প্রস্তাবকে পত্রপাঠ খারিজ করে দিয়েছিল বিচারপতি রাধাকৃষ্ণন ও জে এস খেহরেরই বিশেষ বেঞ্চ। সেই সঙ্গে তাদের সামনে এমন বিভ্রান্তিকর প্রস্তাব পেশের বিষয়টিকে শীর্ষ আদালতের পক্ষে অপমানজনক আখ্যা দিয়ে সংস্থাকে তীব্র ভর্ৎসনাও করেছিল তারা।

Advertisement

তবে মঙ্গলবার শুধুমাত্র টাকা জমা দেওয়ার জন্য নতুন প্রতিশ্রুতিই দেয়নি সহারা। এ দিনের প্রস্তাবে টাকা না-মেটাতে পারলে যে কোনও সময় ব্যাঙ্ক গ্যারান্টি দিতে রাজি থাকার কথাও জানিয়েছে তারা। সে ক্ষেত্রে ফিরিয়ে নেওয়া যাবে না, এমন ব্যাঙ্ক গ্যারান্টিই দেওয়া হবে বলে দাবি তাদের। একই সঙ্গে অবশ্য গোষ্ঠী তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে লেনদেনের অনুমতিও চেয়েছে সুপ্রিম কোর্টের কাছে। কারণ টাকা ফেরাতে না-পারায় এর আগেই ওই লেনদেন বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.