Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বাড়ল টাকাও

সেনসেক্স উঠল ৩৫১

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ১৮ এপ্রিল ২০১৪ ০১:৪৪

টানা তিন দিনের পতনে ৪৩৮ পয়েন্ট খোয়ানোর পর ঘুরে দাঁড়াল সেনসেক্স। বৃহস্পতিবার তা এক লাফে বাড়ল ৩৫১.৬১ অঙ্ক। দিনের শেষে থিতু হল ২২,৬২৮.৮৪ পয়েন্টে।

লাগাতার তিন দিন পড়ার ধাক্কা কাটিয়ে এ দিন উঠেছে টাকাও। ডলারের সাপেক্ষে তার দর বেড়েছে ৮ পয়সা। দিনের শেষে মার্কিন মুদ্রার দাম দাঁড়িয়েছে ৬০.২৯ টাকায়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, সুদ-নির্ভর যে সব শিল্পের (ব্যাঙ্ক, গাড়ি, আবাসন ইত্যাদি) বিভিন্ন সংস্থার শেয়ার দর গত তিন দিন পড়েছিল, তাদের অনেকেরই দাম এ দিন বেড়েছে। কারণ লগ্নিকারীরা মনে করেছেন, পড়ার পর দর যেখানে নেমেছে, সেখানে টাকা ঢাললে লাভের মুখ দেখার সম্ভাবনা। একই কারণে এ দিন চাহিদা ছিল রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজ-সহ বেশ কিছু নামী (ব্লু চিপ) সংস্থার শেয়ারেরও।

Advertisement

বাজারের পালে হাওয়া জুগিয়েছে টিসিএস, এইচসিএল টেকনোলজিস, উইপ্রো, মাইন্ড-ট্রির ভাল ফলাফলও। গত বছরের শেষ ত্রৈমাসিকে নিট মুনাফা ৫১.৫% বাড়ার কথা ঘোষণা করে গতকাল বাজার বন্ধের পর অনেককে চমকে দিয়েছিল টিসিএস। প্রত্যাশিত ভাবেই তার সদর্থক প্রভাব পড়েছে বাজারে। তার উপর এ দিন নিট মুনাফা ৫৯% এবং ২৯% (প্রায়) বেড়েছে বলে জানিয়েছে যথাক্রমে এইচসিএল এবং উইপ্রো। ফল ভাল হয়েছে ইনফোসিস এবং মাইন্ড-ট্রিরও। তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির এই প্রত্যাশা ছাপানো ফলাফল ইন্ধন জুগিয়েছে বাজারের উত্থানে।

অনেক বিশেষজ্ঞের মতে, নিলামে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের ২০,০০০ কোটি টাকার বন্ড বিক্রির সাফল্যও প্রভাব ফেলেছে বাজারে। কারণ, লগ্নিকারীরা মনে করেছেন, বিভিন্ন ব্যাঙ্ক ও আর্থিক সংস্থা ওই বন্ড কেনায় তার প্রতিফলন দেখা যাবে তাদের লাভের খতিয়ানে। ফলে বেড়েছে তাদের শেয়ার দর।

বাজারকে এক দিনে সাড়ে তিনশো পয়েন্ট ঠেলে তোলার পিছনে ভূমিকা রয়েছে মার্কিন মূল্যায়ন (ক্রেডিট রেটিং) বহুজাতিক এসঅ্যান্ডপি-র মন্তব্যেরও। নিস্ফলা রাজনীতির কারণে অর্থনীতির গতি হারানোর অভিযোগে গত বছর ভারতের ঋণ ফেরত দেওয়ার ঝুঁকি নিয়ে দৃষ্টিভঙ্গী (আউটলুক) স্থিতিশীল (স্টেব্ল) থেকে নেতিবাচক (নেগেটিভ) -এ নামিয়ে এনেছিল তারা। হুঁশিয়ারি দিয়েছিল, অবস্থা না-বদলালে ক্রেডিট রেটিং কমানোর। সেই এসঅ্যান্ডপি-ই আবার এ দিন জানিয়েছে, কেন্দ্রে নতুন সরকার এসে ঘাটতি ছাঁটাই, আর্থিক ও কর ব্যবস্থার সংস্কার ইত্যাদি পদক্ষেপ করতে পারলে, ওই দৃষ্টিভঙ্গী (আউটলুক) ফের স্থিতিশীলে ফিরিয়ে নিয়ে যাবে তারা। আর বাজার (বিশেষত বিদেশি আর্থিক সংস্থাগুলি) যেহেতু ভোটের পর কেন্দ্রে শক্তিশালী সরকার আসার বিষয়ে আশাবাদী, তাই বিশেষজ্ঞদের মতে মার্কিন সংস্থাটির এ দিনের বয়ান সহায়ক হয়েছে সেনসেক্সের উত্থানে।

আরও পড়ুন

Advertisement