Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

লক্ষ্য ফাইভ জি পরিষেবা

চায়না মোবাইলের সঙ্গে হাত মেলাল এয়ারটেল

সংবাদ সংস্থা
বার্সেলোনা ০৪ মার্চ ২০১৫ ০২:২৯
চুক্তির পরে গুয়োহুয়া ও মিত্তল। মঙ্গলবার। ছবি: পিটিআই।

চুক্তির পরে গুয়োহুয়া ও মিত্তল। মঙ্গলবার। ছবি: পিটিআই।

ফোর জি, ফাইভ জি-র মতো উন্নত পরিষেবা দেওয়ার পাশাপাশি টেলিকম সরঞ্জাম কেনা-সহ বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগিতার জন্য চায়না মোবাইলের সঙ্গে হাত মেলাল ভারতী এয়ারটেল।

মঙ্গলবার এই চুক্তিতে সই করেন ভারতী এয়ারটেলের প্রতিষ্ঠাতা ও কর্ণধার সুনীল ভারতী মিত্তল এবং চায়না মোবাইলের চেয়ারম্যান জি গুয়োহুয়া। মিত্তলের দাবি, ‘‘এই চুক্তি নয়া মাইলফলক। ভারত ও চিন দুই দেশেই নেটের ব্যবহার বাড়ছে দ্রুত। তাই এই চুক্তির ফলে ফোর জি বা আরও উন্নত ফাইভ জি পরিষেবার ক্ষেত্রে সুবিধা পাবে দুই সংস্থাই।’’

মোবাইল পরিষেবা দিতে প্রয়োজনীয় পণ্য উদ্ভাবন, তার গুণমান নিশ্চিত করা ইত্যাদি কাজে এ বার পারস্পরিক সহযোগিতার পথে হাঁটবে চায়না মোবাইল এবং এয়ারটেল। শুধু তা-ই নয়, সরঞ্জাম কেনার সময়ে দর কষাকষিতেও সুবিধা পাবে তারা। একসঙ্গে বিপুল বরাতের কারণে সুবিধা পাবে দামেও।

Advertisement

গ্রাহক সংখ‌্যার বিচারে বিশ্বের প্রথম চার মোবাইল পরিষেবা সংস্থার মধ্যে থাকা এয়ারটেলের ব্যবসা ছড়িয়ে রয়েছে এশিয়া ও আফ্রিকার ২০টি দেশে। গত ডিসেম্বরের শেষে তাদের গ্রাহক সংখ্যা ছিল ৩১ কোটি ২০ লক্ষ। ব্যবসার অঙ্ক ৮০০ কোটি পাউন্ড (৭৬,৮০০ কোটি টাকা)। অন্য দিকে, গ্রাহক সংখ্যা এবং ব্যবসার অঙ্ক দু’য়েরই বিচারে বিশ্বের বৃহত্তম মোবাইল পরিষেবা সংস্থা চায়না মোবাইল। ব্যবসার পরিমাণ ৬,৬০০ কোটি পাউন্ড (৬ লক্ষ ৩৩ হাজার কোটি টাকা)। গ্রাহক সংখ্যা ৭৯ কোটি। তা ছাড়া, বিশ্বের মোট মোবাইল গ্রাহকের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ রয়েছেন ভারত এবং চিনে। তাই এমন সম্ভাবনাময় দুই বাজারের এই মাপের দুই সংস্থা হাত মেলানোয় তারা টেলি সরঞ্জাম কেনার দর কষাকষিতে বিপুল সুবিধা পাবে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরাও।

মাসুল বাড়াতে সওয়াল। আগামী কাল থেকে স্পেকট্রাম নিলাম শুরুর আগে মোবাইলে মাসুল বৃদ্ধির পক্ষে সওয়াল করল এয়ারটেল। বার্সেলোনায় মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে সুনীল মিত্তল বলেন, কথা বলার ক্ষেত্রে মিনিটে ৫ থেকে ৭ পয়সা এবং ডেটা ব্যবহারের ক্ষেত্রে প্রতি মেগাবাইটে ২-৩ পয়সা মাসুল বাড়া উচিত। তাঁর দাবি, এতে গ্রাহকের পকেটে চাপ পড়বে না। গত তিন বছরে মাসুল মিনিটে মাত্র ৩ পয়সা বেড়েছে বলেও তাঁর অভিযোগ। উল্লেখ্য, আগামী টু-জি এবং থ্রি-জি স্পেকট্রাম নিলামে যে-আটটি সংস্থা অংশ নিতে চলেছে, এয়ারটেল তার অন্যতম। মিত্তল স্পষ্টই জানিয়েছেন, চড়া দরে স্পেকট্রাম কেনার ছাপ ব্যালান্স শিটে পড়লে, মাসুল বাড়ানোর চিন্তা করতে বাধ্য হবেন তাঁরা।

আরও পড়ুন

Advertisement