Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

জিও-র সঙ্গে নতুন লড়াই টেলি পরিষেবায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ ০২:৫৭

প্রথম চালটা দিয়েছিল রিলায়্যান্স-জিও। তার পর একে একে পাল্টা দান দিচ্ছে বাকিরাও। গ্রাহক ধরে রাখতে রোমিং-এর বাড়তি মাসুল তুলে দেওয়ার কথা জানাল দেশের বৃহত্তম মোবাইল সংস্থা এয়ারটেল। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভোডাফোন-ও গ্রাহকদের ৪জি মোবাইলে নিখরচায় বাড়তি ৫ জিবি ‘ডেটা’ পরিষেবার (৪জি বা ৩জি) সুযোগ দিতে এসএমএস মারফত বার্তা পাঠাচ্ছে।

কয়েক দিন আগেই রিল-জিও জানিয়েছে, আগামী এপ্রিল থেকে নেট পরিষেবায় মাসুল চাপানোর কথা। কিন্তু তারপরও তারা যে বিপুল ‘ডেটা’ পরিষেবা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, তা বাজারে নতুন করে মাসুল যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়েছে। এয়ারটেল বা ভোডাফোনের মতো সংস্থার নয়া বিপণন কৌশলকে তারই পাল্টা হিসেবেই দেখছে সংশ্লিষ্ট মহল। যদিও তা মানতে নারাজ অন্য সংস্থাগুলি।

এখন গ্রাহক নিজের ‘সার্কেল’-এর বাইরে দেশের যে-কোনও প্রান্তে গিয়ে মোবাইল ফোন ব্যবহার করলেই ‘রোমিং’-এর জন্য বাড়তি খরচ বইতে হয় তাঁকে। এয়ারটেল সোমবার জানিয়েছে, আগামী এপ্রিল থেকে তাঁদের আর ফোন, এসএমএস বা ইন্টারনেট-এর জন্য রোমিংয়ের সময়ে কোনও বাড়তি খরচ লাগবে না। তাঁর যা ‘ডেটা প্যাক’ থাকবে, সেই মাসুলেই তিনি ইন্টারনেট পরিষেবাও পাবেন।

Advertisement

পাল্টা চাল

•রোমিং খরচ তুলল এয়ারটেল, সুবিধা বিদেশে গেলেও

•নিখরচায় বাড়তি নেট পরিষেবার সুযোগ ভোডাফোনে

অন্য দিকে, ভিন্ দেশে মোবাইল পরিষেবা ব্যবহারের জন্য অনেক সময়েই বিপুল ‘বিল’-এর বোঝা চাপে গ্রাহকদের মাথায়। সে ক্ষেত্রেও স্বস্তি দিয়ে গ্রাহক ধরে রাখার কৌশলই নিয়েছে সংস্থাটি। অনেকেই যেমন আলাদা বিশেষ ‘প্যাক’ কিনে বিদেশে যান, তেমনই অনেকে আবার তা করেন না। ফলে সমস্যায় পড়েন তাঁরা। সে কথা মাথায় রেখেই সংস্থা জানিয়েছে: যে-সব দেশে যাতায়াত বেশি, সেখানে এক দিনের যে বিশেষ প্যাক (যেমন আমেরিকায় ৬৪৯ টাকা, সিঙ্গাপুরে ৪৯৯ টাকা) রয়েছে, গ্রাহকের বিল সেই সীমায় পৌঁছনোমাত্রই তাঁকে অবহিত করে বার্তা পাঠাবে এয়ারটেল। ফলে গ্রাহক চাইলে তখনই ফোন বন্ধ করে দিতে পারবেন। অথবা বুঝে ব্যবহার করবেন। পাশাপাশি সেই বিশেষ ‘প্যাক’-এর যে সব সুবিধা তাঁর প্রাপ্য, তখন তা-ও তিনি পাবেন। সংস্থাটি জানিয়েছে, ওই ‘প্যাক’ শেষ হয়ে গেলেও ২৪ ঘণ্টার বাকি সময়ের জন্য সেখানে ফোন করার খরচ ৯০% কমিয়ে মিনিটে তিন টাকা এবং ‘ডেটা’ ব্যবহারের খরচ ৯৯% কমিয়ে এক ‘এমবি’-র জন্য তিন টাকা করা হচ্ছে। পরের দিন আবার গোড়ায় বাড়তি দামেই পরিষেবা মিলবে। প্যাক শেষ হলে ফের মাসুল হার কমে আসবে। রোজ এই হিসেবে মাসুল ধরলে গ্রাহকের আখেরে লাভই হবে বলে দাবি সংস্থাটির।

টেলিকম শিল্পমহলের একাংশের মতে, তুমুল প্রতিযোগিতার বাজারে গ্রাহককে ধরে রাখতেই এই ‘যুদ্ধে’র কথা বলেছে এয়ারটেল। বস্তুত, সংস্থাটির এমডি ও সিইও (ভারত ও দক্ষিণ আফ্রিকা) গোপাল ভিত্তল বলেছেন, ‘‘এই পদক্ষেপ জাতীয় রোমিং-এর মৃত্যু ঘটাবে। বাইরে থাকার সময়ে গ্রাহকদের এই পরিষেবা ব্যবহার করার আগে দু’বার ভাবতে হবে না।’’



Tags:

আরও পড়ুন

Advertisement