Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ভারতে হাতফেরতা আই ফোন বেচতে পারবে না অ্যাপল

হাতফেরতা আই ফোন ভারতে আমদানি করতে আবেদন জানিয়েছিল অ্যাপল। কিন্তু সেই আর্জি খারিজ করে দিল কেন্দ্র। ফলে ফোন বিক্রি বাড়াতে মার্কিন সংস্থাটির এ

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই ০৫ মে ২০১৬ ০৩:২৬
Save
Something isn't right! Please refresh.
Popup Close

হাতফেরতা আই ফোন ভারতে আমদানি করতে আবেদন জানিয়েছিল অ্যাপল। কিন্তু সেই আর্জি খারিজ করে দিল কেন্দ্র। ফলে ফোন বিক্রি বাড়াতে মার্কিন সংস্থাটির এই উদ্যোগ ধাক্কা খেতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চাহিদা কমছে আই ফোনের। আত্মপ্রকাশের পর থেকে গত ত্রৈমাসিকে চিনে এই প্রথম তার বিক্রি কমেছে। এই পরিস্থিতিতে ভারতকেই পাখির চোখ করে এগোতে চাইছে অ্যাপল। সম্প্রতি খারাপ আর্থিক ফল প্রকাশের পর সেই বার্তাই শোনা গিয়েছে সংস্থার কর্ণধার টিম কুকের গলায়। ভারতের ফোন বাজারে অ্যাপলের দখল মাত্র ২%। কিন্তু সেখানেই গত তিন মাসে বিক্রি বেড়েছে ৫৬%। ‘আই ফোন ৫ এস’-এর মতো পুরনো মডেলের বিক্রি বৃদ্ধিই যার অন্যতম কারণ। ফলে আগামী দিনেও পুরনো ফোন সারিয়ে, তা ভারতে কম দামে বিক্রির পরিকল্পনা নিয়েছিল অ্যাপল। ইতিমধ্যেই আমেরিকা-সহ বিশ্বের বেশ কিছু দেশে যা করে থাকে তারা। কিন্তু সেই আবেদন খারিজ হয়ে গেল।

ভারতের ক্ষেত্রে অ্যাপলের আর্জি খারিজ করতে পাল্টা আবেদন জানিয়েছিল দেশীয় মোবাইল নির্মাতারা। বিষয়টি নিয়ে টেলিকম মন্ত্রকের কাছে চিঠি পাঠায় কনজিউমার ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড অ্যাপ্লায়েন্সেস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশন। তাদের দাবি ছিল, এ ভাবে ফোন বিক্রি করা ভারতীয় আইন বিরোধী। এ প্রসঙ্গে টেলিকম মন্ত্রকের মুখপাত্র এন এন কল জানান, ভারত উৎপাদন খরচের থেকে কম দামে পণ্য বিক্রি (ডাম্পিং) এবং পুরনো বাতিল ও ক্ষতিকর পণ্য ফের ব্যবহারের বিরোধী। পাশাপাশি, মেক ইন ইন্ডিয়া কর্মসূচির আওতায় দেশেই ফোন-সহ নানা পণ্য তৈরিতে উৎসাহ জোগাচ্ছে কেন্দ্র। এই অবস্থায় অ্যাপলের সেই আবেদন খারিজ করেছে সরকার।

Advertisement

সম্প্রতি ছোট স্ক্রিনের ‘আই ফোন এসই’ এনেছে অ্যাপল। বিশেষজ্ঞদের মতে, এমনিতে কম দামি ফোনের তকমা পেলেও, ভারতে তা প্রায় ৩৯ হাজার টাকা। মার্কিন মুলুকের তুলনায় প্রায় ২০০ ডলার (সাড়ে ১৩ হাজার টাকা) বেশি। ফলে এখানে সেটির তত চাহিদা দেখা যায়নি। বরং অন্যান্য সংস্থার কম দামি ফোন ও অ্যাপলের পুরনো আই ফোন বেশি সাড়া পাচ্ছে। ফলে ২৫% হারে বাড়তে থাকা স্মার্টফোন বাজারে দখল বাড়াতে গেলে অ্যাপলকে আই ফোনের দাম কমাতে হবে বলে মনে করছেন তাঁরা।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement